চট্টগ্রাম বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

বিদেশি পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল (ছবি: ফোকাস বাংলা)

সুষ্ঠু ও সংঘাতমুক্ত নির্বাচন করতে আমরা প্রস্তুত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

৩০ জুলাই, ২০২৩ | ৪:৩৫ অপরাহ্ণ

একটি সুষ্ঠু ও সংঘাতমুক্ত নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য পুরো আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

 

রবিবার (৩০ জুলাই) বাংলাদেশে সফররত একটি আন্তজার্তিক প্রতিনিধি দল তার দপ্তরে মতবিনিময় করতে এলে তাদেরকে তিনি এ কথা জানান।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যেকোনো ধরনের পরিবেশ, পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।

 

বৈঠক শেষে সংক্ষিপ্ত সংবাদ ব্রিফিংয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমেরিকা, লন্ডন, জাপান ও কোরিয়ান প্রতিনিধি ছিল। নির্বাচন কেমন হবে সেসব বিষয়ে তারা পর্যবেক্ষণ করছে। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় কি প্রস্তুতি নিয়েছে? এ বিষয়ে তারা জানতে চেয়েছেন। আমরা বলেছি আমাদের পুলিশ বাহিনী, বিজিবি, আনসার কোস্টগার্ডসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত। তারা তাদের দক্ষতা, বিজ্ঞতা এবং পেশাদারিত্বে তারা এগিয়ে রয়েছে। তারা যেকোনো নির্বাচন অনুষ্ঠানে তাদের সক্ষমতা রয়েছে।

 

তিনি বলেন, আমাদের একাত্তরের পর থেকে এ পর্যন্ত যতগুলো নির্বাচন হয়েছে সবগুলোতে সঠিক ভূমিকা রেখেছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো এখানে মন্ত্রণালয়ের কোনো ভূমিকা থাকবে না। মূখ্য ভূমিকায় থাকবে ইলেকশন কমিশন। তাদের তত্ত্বাধায়নেই আমাদের যত সিকিউরিটি ফোর্সগুলো থাকবে, প্রশাসনও থাকবে। আমরা আরো বলেছি, এই সময়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাউকে বদলি পদায়ন কিছুই করতে পারবে না।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা জানতে চেয়েছিলেন আমাদের পুলিশ ফোর্স সংখ্যা পর্যাপ্ত আছে কীনা। আমরা তাদের জানিয়েছি আমাদের একটা শৃঙ্খল ফোর্স রয়েছে। এক বিলিয়নের মতো তৈরি রয়েছে নির্বাচনের জন্য। পুলিশ ফোর্সের পাশাপাশি তারা কাজ করবে। একটি শান্তিপূর্ণ এবং সংঘাতমুক্ত নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমরা প্রস্তুত। তারা আমাদের কথায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

 

তিনি বলেন, মূলত তারা আসছিলেন আমাদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নির্বাচনের জন্য কতটা প্রস্তুত। আমরা তাদের বলে দিয়েছি আমরা প্রস্তুত। নির্বাচন কমিশন যেদিন থেকে তফসিল ঘোষণা করবে সেদিন থেকে আমাদের পুরো ফোর্স তাদের তত্ত্বাবধায়নে চলে যাবে। শুধু ফোর্স নয় যা কিছু আছে সবই তাদের নেতৃত্বে চলে যাবে। নির্বাচনের দিন কি করে শান্তি শৃঙখলা রক্ষা হবে সেসব আমরা বলেছি। এক্সিকিউট ম্যাজিস্ট্রেড ও জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেড তারা টিম করে নির্বাচনের দিন মনিটর করবেন এবং যেখানে অসঙ্গতি দেখতে সেখানে ব্যবস্থা নেবেন।

 

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ইস্যুতে কথা হয়েছে কীনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা তো সংবিধানেই নেই। তাই আলোচনার প্রশ্নই আসে না।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট