চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

ডেঙ্গু রোগীদের মৃত্যু বেশি শক সিনড্রোমে

১১ জুন, ২০২৩ | ৮:৩০ অপরাহ্ণ

এ বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মারা যাওয়া প্রায় প্রত্যেকেই ডেঙ্গু হেমোরেজিক ফিভারে ভুগছিল এবং শক সিনড্রোমে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। গতকাল শনিবার অধিদপ্তরের এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গতকাল শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৫৬ জন। মৃত্যু হয়েছে একজনের। এ সময় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে আরো ১০৭ জনের দেহে।

ডেঙ্গু পরিস্থিতি : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৫৪৯। তাদের মধ্যে ঢাকায় ৪৭৩ ও ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ৭৬ জন। এ বিষয়ে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যের ডিজি বলেন, ‘চলতি বছর ঢাকার বাইরে তেমন রোগী ভর্তি নেই। বেশির ভাগ রোগী ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে। এর মধ্যে বর্তমানে সর্বোচ্চ ১৪৭ জন রোগী মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে। সারা দেশে রোগীর সংখ্যা কম থাকলেও আমরা সারা দেশের সব হাসপাতাল প্রস্তুত রেখেছি।

চলতি বছর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল তিন হাজার ২১। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছে ২২ জন। তাদের মধ্যে ১৮ জন ঢাকার, তিনজন চট্টগ্রাম ও একজন বরিশাল বিভাগের।

এ বছর জানুয়ারি মাসে ৫৬৬ জন, ফেব্রুয়ারিতে ১৬৬ জন, মার্চে ১১১ জন, এপ্রিলে ১৪৩ জন, মে মাসে এক হাজার ৩৬ জন ও জুন মাসে এ পর্যন্ত ৯৯৯ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তাদের মধ্যে জানুয়ারিতে ছয়জন, ফেব্রুয়ারিতে তিনজন, এপ্রিলে দুজন এবং মে মাসে দুজন ও জুন মাসে এখন পর্যন্ত ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। তথ্যসূত্র: কালের কণ্ঠ

 

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট