চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

কারো কাছে মাথা নত করব না: প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

১১ জুন, ২০২৩ | ৪:২৬ অপরাহ্ণ

দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয় পুর্নব্যক্ত করে কারো কাছে মাথা নত না করার অঙ্গীকার করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, যতক্ষণ দেহে প্রাণ আছে ততক্ষণ জঞ্জাল সরাতে কাজ করে যাবেন।

 

আজ রবিবার (১১ জুন) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

 

কবি সুকান্ত ভট্টাচার্যের ‘ছাড়পত্র’ কবিতা থেকে উদ্বৃত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজ যতক্ষণ দেহে আছে প্রাণ, প্রাণপণে পৃথিবীর সরাব জঞ্জাল, এ বিশ্বকে এ শিশুর বাসযোগ্য করে যাব আমি, নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার। কবি সুকান্তের ভাষায় বলে গেলাম।’

 

মাধ্যমিক থেকে স্নাতক ও সমমান পর্যায়ের অসচ্ছল ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের ‘উপবৃত্তি ও টিউশন ফি বিতরণ কার্যক্রম’ উদ্বোধন, ‘বঙ্গবন্ধু সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ-২০২৩’ এর সেরা মেধাবী পুরস্কার এবং ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব স্কলার অ্যাওয়ার্ড-২০২২’ বিতরণ উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে দেশটাকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাব। বাংলাদেশ, বাঙালি জাতি বিশ্ব দরবারে মাথা উঁচু করে চলবে, আত্মমর্যাদা নিয়ে, আত্মসম্মান নিয়ে চলবে, কারো কাছে মাথা নোয়াব না। এটাই হচ্ছে আমাদের প্রতিজ্ঞা।

 

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘ছোট্ট সোনামনিদের কাছে আমার সেটাই (পরামর্শ), সব সময় মাথায় রাখতে হবে আমরা মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ী জাতি, কারো কাছে মাথা নত করে আমরা চলি না। মাথা উঁচু করে আমরা চলি, মাথা উঁচু করে চলব। আজকে বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে উন্নয়নের রোল মডেল, কাজেই আমরাও পথ দেখাতে পারি।

 

শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করে বলেন, আমাদের মেধাবী ছেলেমেয়েরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

 

এ সময় প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত শিক্ষার্থীদের কাছে জানতে চান- তারা পারবে কিনা। সবাই সমস্বরে পারবে বলে জবাব দেয়।

 

শেখ হাসিনা বলেন, দেশের মানুষকে ভুলবে না। মানুষের জন্য কিন্তু সব। জাতির পিতা বলেছিলেন- শিক্ষিত ভাইয়েরা, আপনাদের লেখাপড়ার যে খরচ জনগণ দিয়েছে তা শুধু আপনাদের সংসার দেখবার জন্য নয়। দিয়েছে এই জন্য যে, তাদের জন্য আপনারা কাজ করবেন, তাদের সেবা করবেন। জনগণের সেবা করতে হবে। জনসেবার চেয়ে আর কোনো কিছু বড় না।

 

দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়তে শিক্ষিত জাতির প্রয়োজনীয়তার কথা তুলে ধরে সরকারপ্রধান বলেন, স্বাধীনতার পর জাতির পিতা একটা কথা বলতেন- দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য শিক্ষাই হচ্ছে মূল হাতিয়ার। শিক্ষা ছাড়া একটা জাতি দারিদ্র্যমুক্ত হতে পারে না। জাতির পিতা বলেছেন, শিক্ষায় যত অর্থই ব্যয় হোক এটা হচ্ছে বিনিয়োগ। শিক্ষিত জাতি ছাড়া দারিদ্র মুক্ত বাংলাদেশ গড়া সম্ভব না। তার জন্যই আজকে আমাদের সব উদ্যোগ এই শিক্ষাক্ষেত্রে আমরা নিয়ে যাচ্ছি।

পূর্বকোণ/পিআর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট