চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

সর্বশেষ:

মে মাসে সড়কে ঝরল ৪০৮ প্রাণ

অনলাইন ডেস্ক

৯ জুন, ২০২৩ | ৪:১৬ অপরাহ্ণ

মে মাসে দেশে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেছে ৪৯১টি। এতে ৪০৮ জন নিহত ও ৬৩১ জন আহত হয়েছেন। নিহতের মধ্যে ৬৭ জন নারী ও ৭৮ জন শিশু। এ সময়ে ছয়টি নৌ-দুর্ঘটনায় চারজন নিহত ও দুইজন নিখোঁজ রয়েছেন। ২৫টি রেলপথ দুর্ঘটনায় ২৩ জন নিহত ও ছয়জন আহত হয়েছে।

শুক্রবার (৯ জুন) রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক সাইদুর রহমানের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

নয়টি জাতীয় দৈনিক, সাতটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল এবং ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যমের তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মে মাসে ১৫৬টি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১৪১ জন, যা মোট নিহতের ৩৪ দশমিক ৫৫ শতাংশ। মোটরসাইকেল দুর্ঘটনার হার ৩১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। দুর্ঘটনায় ১০৪ জন পথচারী নিহত হয়েছেন, যা মোট নিহতের ২৫ দশমিক ৪৯ শতাংশ। যানবাহনের চালক ও সহকারী নিহত হয়েছেন ৭২ জন অর্থাৎ ১৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ।

এতে বলা হয়, দুর্ঘটনায় যানবাহনভিত্তিক নিহতের পরিসংখ্যানে দেখা যায়- মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী ১৪১ জন (৩৪ দশমিক ৫৫ শতাংশ), বাস যাত্রী ছয়জন (১ দশমিক ৪৭ শতাংশ), ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, পিকআপ, ট্রাক্টর, ট্রলি, লরি, ট্যাংকার আরোহী ৩৬ জন (৮ দশমিক ৮২ শতাংশ ), প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, অ্যাম্বুলেন্স আরোহী ১৮ জন (৪ দশমিক ৪১ শতাংশ), থ্রি-হুইলার যাত্রী (ইজিবাইক, সিএনজি, অটোরিকশা, অটোভ্যান, মিশুক) ৬৮ জন (১৬ দশমিক ৬৬ শতাংশ), স্থানীয়ভাবে তৈরি যানবাহনের যাত্রী (নসিমন, করিমন, মাহিন্দ্র, ইট ভাঙার মেশিন গাড়ি) ১৫ জন (৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ) ও বাইসাইকেল, প্যাডেল রিকশা, রিকশা ভ্যান আরোহী ২০ জন (৪ দশমিক ৯০ শতাংশ) নিহত হয়েছেন।

রোড সেফটি ফাউন্ডেশনের পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণ বলছে, দুর্ঘটনাগুলোর মধ্যে ১৬৫টি (৩৩ দশমিক ৬০ শতাংশ) জাতীয় মহাসড়কে, ২০১টি (৪০ দশমিক ৯৩ শতাংশ ) আঞ্চলিক সড়কে, ৭৩টি (১৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ) গ্রামীণ সড়কে, ৪৮টি (৯ দশমিক ৭৭ শতাংশ) শহরের সড়কে ও অন্যান্য স্থানে ৪টি ( শূন্য দশমিক ৮১ শতাংশ) সংঘটিত হয়েছে।

দুর্ঘটনার বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যান বলছে, ঢাকা বিভাগে দুর্ঘটনা ২৭ দশমিক ২৯ শতাংশ, প্রাণহানি ২৫ শতাংশ, রাজশাহী বিভাগে দুর্ঘটনা ১৪ দশমিক ৪৬ শতাংশ, প্রাণহানি ১২ দশমিক ৯৯ শতাংশ, চট্টগ্রাম বিভাগে দুর্ঘটনা ১৭ দশমিক ৩১ শতাংশ, প্রাণহানি ১৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ, খুলনা বিভাগে দুর্ঘটনা ১৪ দশমিক ৫ শতাংশ, প্রাণহানি ১৬ দশমিক ১৭ শতাংশ, বরিশাল বিভাগে দুর্ঘটনা ৫ দশমিক ৪৯ শতাংশ, প্রাণহানি ৪ দশমিক ৯০ শতাংশ, সিলেট বিভাগে দুর্ঘটনা ৪ দশমিক ২৭ শতাংশ, প্রাণহানি ৬ দশমিক ৩৭ শতাংশ, রংপুর বিভাগে দুর্ঘটনা ৭ দশমিক ৯৪ শতাংশ, প্রাণহানি ৭ দশমিক ৮৪ শতাংশ এবং ময়মনসিংহ বিভাগে দুর্ঘটনা ৯ দশমিক ১৬ শতাংশ, প্রাণহানি ৯ দশমিক ৬ শতাংশ ঘটেছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি ঘটেছে। এ বিভাগে ১৩৪টি দুর্ঘটনায় ১০২ জন নিহত। সিলেট বিভাগে সবচেয়ে কম ২১টি দুর্ঘটনা এবং বরিশাল বিভাগে দুর্ঘটনায় সবচেয়ে কম প্রাণহানি (২০ জন) ঘটেছে। একক জেলা হিসেবে ঢাকায় সবচেয়ে বেশি ২৯টি দুর্ঘটনায় ২৩ জন নিহত হয়েছেন। সবচেয়ে কম শরীয়তপুর ও রংপুর জেলায়। এই দুটি জেলায় সামান্য মাত্রার ৭টি দুর্ঘটনা ঘটলেও কোনো প্রাণহানি ঘটেনি।

পূর্বকোণ/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট