চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

সর্বশেষ:

ফাইল ছবি

আমার স্মৃতিশক্তি ঠিক আছে : বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ | ১:৩৪ অপরাহ্ণ

নিজের স্মৃতিশক্তি যথেষ্ট ভালো আছে বলে দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। রাষ্ট্রীয় গোপন নথি ঠিকমতো সামাল দিতে পারছেন না, এর পরিপ্রেক্ষিতে এক তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশের পর বাইডেন এমন প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। ওই তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট রাষ্ট্রীয় গোপন কিছু নথি ভুলভাবে পরিচালনা করেছেন এবং নিজের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ কিছু ঘটনা স্মরণ করতে পারছেন না।

বিবিসির খবরে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জনগণের উদ্দেশে হোয়াইট হাউসে দেওয়া এক ভাষণে বাইডেনকে কখনো ক্ষোভ ঝাড়তে, আবার কখনো আবেগতাড়িত হয়ে পড়তে দেখা গেছে। বাইডেনের ভাষণটি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার আমলে ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন বাইডেন। সে সময়ের বেশ কিছু গোপন নথি গত বছর বাইডেনের ডেলাওয়ারের বাড়ি ও ওয়াশিংটন ডিসির সাবেক ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠানের কার্যালয় থেকে উদ্ধার হয়। সরকারি নথি যথাযথভাবে সংরক্ষণ না করার ঘটনা তদন্তে বিশেষ কৌঁসুলি হিসেবে রবার্ট হুরকে নিয়োগ দেন মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল মেরিক গারল্যান্ড।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল রবার্ট হু প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, বাইডেনের স্মৃতিশক্তি কম। তিনি তাঁর জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অনেক ঘটনা মনে রাখতে পারেন না। এমনকি বাইডেন তাঁর ছেলে বিউ কবে মারা গেছেন তা মনে করতে পারছেন না।

এই প্রতিবেদন প্রকাশের পর ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেন। তিনি বলেন, ‘আমার স্মৃতিশক্তি চমৎকার। আমার ছেলে কবে মারা গেছে, সেটি আমার স্মরণে নেই বলা হচ্ছে। কীভাবে এমন প্রশ্ন তোলার স্পর্ধা পান তিনি?’

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাইডেন বলেন, ‘আমি সদয় ও বয়স্ক মানুষ। কী কাজ করছি, তা আমি জানি। আমি প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেশকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে গেছি। প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর আমি কী কী কাজ করেছি দেখুন।’

আসছে নভেম্বরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। নির্বাচনকে সামনে রেখে রবার্ট হুর প্রকাশিত ৩৪৫ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে বলা হয়, ৮১ বছর বয়সী বাইডেন দুর্বল স্মৃতিশক্তির একজন সদয়ও বয়স্ক মানুষ। তবে যথাযথভাবে নথি সংরক্ষণ না করতে পারার ঘটনায় তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করা যায়নি।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন