চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

পাকিস্তানকে বড় ঝটকা দিল টুইটার, গিলগিট-বাল্টিস্তানকে ভারতের বলে দাবি মার্কিন সংস্থার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৪ জুলাই, ২০২৩ | ৪:২৮ অপরাহ্ণ

এবার মাইক্রো-ব্লগিং সাইট টুইটার (Twitter) পাকিস্তানকে (Pakistan) একটি বড় ঝটকা দিয়েছে। শুধু তাই নয়, তারা গিলগিট-বাল্টিস্তানকে ভারতের অংশ হিসেবেও দেখিয়েছে। মূলত, ঘটনাটি হল গত রবিবার যখন ওই এলাকার বাসিন্দারা পাকিস্তান সরকারের অফিসিয়াল হ্যান্ডেলগুলি অ্যাক্সেস করতে গিয়েছিলেন তখন তাঁরা জানতে পারেন যে, এই হ্যান্ডেলগুলি ব্লক করা হয়েছে।

এর পাশাপাশি, সংশ্লিষ্ট অঞ্চলটি ভারতের অন্তর্ভুক্ত কাশ্মীরের অধীনে রয়েছে বলেও জানানো হয়। এমতাবস্থায়, ব্যবহারকারীরা যখন সেখান থেকে টুইট করেন, তখন ওই এলাকার লোকজনকে ভারতের অংশ হিসেবে দেখানো হয়। কারণ লোকেশনটি ছিল কাশ্মীর। এদিকে, গিলগিট-বাল্টিস্তানের টুইটার ব্যবহারকারীদের অভিযোগের ভিত্তিতেই এই চাঞ্চল্যকর বিষয়টি সামনে আসে।

জানা গিয়েছে, ওই ব্যবহারকারীরা দীর্ঘদিন ধরেই সরকারের হ্যান্ডেলগুলি অ্যাক্সেস করার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু প্রতিবারই তাঁদেরকে জানানো হয় যে, “আইনি পদক্ষেপের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতে ওই অ্যাকাউন্টগুলিতে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে।” উল্লেখ্য যে, ২০২৩ সালের মার্চ থেকে, পাকিস্তান সরকারের অফিসিয়াল হ্যান্ডেলগুলি ভারতে নিষিদ্ধ করা হয়। ২০২২ সালে, আইনি অভিযোগের পরে এই অ্যাকাউন্ট দু’বার বন্ধ করা হয়েছিল।

এদিকে, এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গিলগিট-বাল্টিস্তানের রহিমাবাদের বাসিন্দা ইয়াসির হুসেন টুইট করে লিখেছেন, “আমি গিলগিট-বাল্টিস্তানে আছি এবং @GovtofPakistan-এর টুইট টুইটারে দেখা যাচ্ছে না। বলা হচ্ছে যে, আইনি কারণে ভারতে অ্যাকাউন্টটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।” এদিকে, ইয়াসির পাকিস্তানের বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা টুইটগুলির একটিও দেখতে পাননি, যেগুলি তিনি ফলো করতেন।

পাকিস্তান জিও-ট্যাগিং থেক উধাও: এমতাবস্থায়, ডন পত্রিকা ইয়াসির হুসেনকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে যে, তিনি যখন তাঁর টুইটে লোকেশন যুক্ত করার চেষ্টা করেছিলেন, তখন তিনি জানতে পারেন যে তিনি পাকিস্তানের পরিবর্তে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরে রয়েছেন। তিনি বলেন, পাকিস্তান কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা উচিত। হুসেনের মত অনুযায়ী, ভারত গিলগিট-বাল্টিস্তানের জিও-ট্যাগিং পরিবর্তন করার ক্ষেত্রে টুইটারকে প্রভাবিত করতে পারে। যদিও এই বিষয়ে টুইটার থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এখনও পর্যন্ত মেলেনি প্রতিক্রিয়া: উল্লেখ্য যে, এই বিষয়ে টুইটারের তরফে এবং পাকিস্তান টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে, আরেক টুইটার ব্যবহারকারী করিম শাহ নিজারির মতে, তিনি শুধুমাত্র টুইটে পাকিস্তানের লোকেশন যুক্ত করতে ব্যর্থ হয়েছেন। তাঁকে একটাই অপশন দেখানো হয়েছিল, “জম্মু-কাশ্মীর”। নিজারির মতে, তিনি ঘিজার জেলার ইয়াসিন উপত্যকায় থাকেন, কিন্তু টুইটার অ্যালগরিদম তাঁকে তাঁর ফিডে ভারতের হিসেবে দেখিয়েছে।

পূর্বকোণ/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট