চট্টগ্রাম সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪

সেনেগালে বিরোধী নেতার কারাদণ্ড, বিক্ষোভে নিহত ৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

২ জুন, ২০২৩ | ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ

সেনেগালের বিরোধী নেতা ওসমানে সোনকোকে কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়ার পর দেশটিতে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। সেই বিক্ষোভে অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছেন। সোনকোর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যুবকদের ভুল পথে চালিত করার অভিযোগ ছিল। দ্বিতীয় অভিযোগে তার জেল হয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকে এই রায়ের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয়। সেই বিক্ষোভে গুলি চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। তাতেই নয়জন মারা গেছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টেলিভিশনে বলেছেন, দুইটি শহরে বিক্ষোভে নয়জনের মৃত্যু হয়েছে।

সোনকো ছিলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি। কিন্তু যুবকদের ভুল পথে চালিত করার অভিযোগে তার দুই বছরের জেল হয়েছে। সোনকো যুবকদের মধ্যে খুবই জনপ্রিয়।

সোনকো অভিযোগ করেছিলেন, তিনি যাতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে না পারেন, সেজন্য ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি বিচারপ্রক্রিয়া বয়কট করেছিলেন। কিন্তু রায় বের হওয়ার আগে তাকে জোর করে ডাকারে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে আদালতের রায়ের পরই সেনেগালের রাস্তায় বিক্ষোভ শুরু হয়। বাসে আগুন ধরানো হয়। দাঙ্গাবিরোধী পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছোড়া হয়। সোনকোর দল পিএএসটিইএফ অভিযোগ করে, এই রায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসা ছাড়া আর কিছুই নয়।

ডাকারে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর থেকে কালো ধোঁয়া আকাশে উঠতে দেখা যায়। এখানে একাধিক বাসে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। সরকারি মুখপাত্র অবশ্য দাবি করেছেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

গতবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সোনকো তৃতীয় হয়েছিলেন। সেনেগালের নিয়ম হলো, কোনও রাজনীতিক যদি গুরুতর অপরাধে শাস্তি পান, তাহলে তিনি আর প্রেসিডেন্ট পদে লড়তে পারবেন না। যুবকদের বিপথচালিত করার থেকে ধর্ষণ অনেক গুরুতর অপরাধ।

তবে যুবকদের বিপথচালিত করার জন্য সোনকো আর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়তে পারবেন কি না, তা এখনও স্পষ্ট নয়। অবশ্য ধর্ষণের মামলায় সোনকোর শাস্তি হয়নি।

অভিযোগ ছিল, তিনি একটি ম্যাসাজ পার্লারের নারীকে যৌননিগ্রহ করেছিলেন এবং হত্যার হুমকি দিয়েছেন। সূত্র : ডয়চে ভেলে

 

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন