চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

সর্বশেষ:

বৃদ্ধ বয়সে দাঁতের সমস্যা

অনলাইন ডেস্ক

১১ নভেম্বর, ২০২৩ | ৮:১৮ অপরাহ্ণ

যেসব জনগোষ্ঠীর বয়স ৬৫ বছর বা তার বেশি, আমরা তাঁদের প্রবীণ বা বৃদ্ধ বলে থাকি। বাংলাদেশে মোট জনসংখ্যার ৭.৫ শতাংশ প্রবীণ (সংখ্যায় দেড় কোটি)। এই জনসংখ্যার এক-চতুর্থাংশ অপুষ্টিতে ভুগছে। অপুষ্টিতে ভোগা জনগোষ্ঠীর ২২ শতাংশ পুরুষ ও ২৮.৮ শতাংশ নারী।

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব প্রবীণের মুখ ও দাঁতের স্বাস্থ্য খারাপ তাঁদের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ অপুষ্টিতে ভুগছেন। কারণ দাঁত ও মুখ ভালো না থাকায় তাঁরা ঠিকমতো খেতে পারেন না।

সমস্যা যখন দন্তক্ষয় রোগ: বয়স্ক লোকদের সাধারণত দন্তক্ষয় রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। কারণ এই সময় দাঁতের গোড়া থেকে মাড়ি সরে যায় এবং প্রচুর পরিমাণ বিভিন্ন রোগের ওষুধ খাওয়ার কারণে মুখের লালা কমে যায়। ৭৫ বছর ও তার বেশি বয়সীদের মধ্যে অন্তত ৫০ শতাংশের একটি দাঁতের গোড়ায় দন্তক্ষয় রোগ আছে।

কারণ:
১) বৃদ্ধ বয়সে মাড়ির রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়।
২) মাড়ির রোগের প্রকোপ বেশি হওয়ায় দাঁত পড়ে যায়। ধূমপান এবং মুখ ও দাঁতের যত্ন না নেওয়ায় এই হার আরো বেড়ে যায়।
৩) মুখের ক্যান্সারও হয়ে থাকে বৃদ্ধ বয়সে।
৪) বয়স্ক লোকদের ক্রনিক রোগ যেমন, ডায়াবেটিক, হৃদরোগ, আর্থ্রাইটিস, ফুসফুসের রোগ ইত্যাদি হয়ে থাকে। এগুলো মাড়ির রোগ বাড়িয়ে তোলে।

এ বয়সে মুখ ও দাঁতের যত্নে করণীয়:

১) সাধারণত সফট টুথ ব্রাশ বা ইলেকট্রিক টুথ ব্রাশ ব্যবহার করা ভালো।
২) উচ্চ ফ্লুরাইডযুক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার করা উচিত। এ ছাড়া ফ্লুরাইড মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করা যেতে পারে।
৩) প্রচুর পরিমাণ পানি (৭-৮ গ্লাস) খেতে হবে।
৪) ধূমপান ও অ্যালকোহল বর্জন করতে বে।
৫) উচ্চ অ্যালকোহলযুক্ত পানীয় বর্জন করতে হবে। মনে রাখতে হবে, বৃদ্ধ বয়সে মুখ ও দাঁতের যত্ন নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কোনো সমস্যা অনুভব করলে দন্ত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

পরামর্শ দিয়েছেন: ডা. অনুপম পোদ্দার, অধ্যক্ষ, খুলনা ডেন্টাল কলেজ।

 

 

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট