চট্টগ্রাম বুধবার, ২২ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

নারীর কিডনি রোগের ঝুঁকি বেশি যেসব কারণে

অনলাইন ডেস্ক

৩ জুলাই, ২০২৩ | ৭:৫২ অপরাহ্ণ

বছরের পর অনেক নারীর মধ্যে কিডনির সমস্যা দেখা দিচ্ছে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে কিডনির সমস্যা হওয়ার ঝুঁকি আরও বেড়ে যায় । কিডনি রোগের ঝুঁকি কমাতে কিছু পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’র এক প্রতিবেদনে।

কিডনিতে পাথর: অনেক সময় নারীদের কিডনিতে পাথর জমা হয়। হরমোনের পরিবর্তন, খাদ্যাভ্যাস এবং বংশগত কারণে এটা হতে পারে। কিডনিতে পাথর জমা হলে পিঠে বা পেটে প্রচণ্ড ব্যথা, প্রস্রাবে রক্ত এবং ঘন ঘন প্রস্রাব হতে পারে। প্রচুর পানি পান করা, স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস, স্থূলতা এবং ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ কিডনিতে পাথর হওয়ার ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করতে পারে।

মূত্রনালীর সংক্রমণ (ইউটিআই): পুরুষের তুলনায় নারীদের মধ্যে ইউটিআই সংক্রমণ বেশি দেখা যায়। সময়মতো চিকিৎসা করানো না হলে তা কিডনিকে প্রভাবিত করতে পারে। মূত্রনালীতে ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করলে ইউটিআইয়ের সমস্যা দেখা দেয়। মূত্রনালীর সংক্রমণ হলে প্রস্রাবের সময় জ্বালাপোড়া, ঘন ঘন প্রস্রাব, প্রস্রাবের সঙ্গে রক্ত পড়া, পেটে ব্যথা ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দেয়। কিডনির সংক্রমণ রোধ করতে এ সমস্যা নিরাময় প্রয়োজন। এজন্য চিকিৎসকের পরামর্শে প্রয়োজনে অ্যান্টিবায়োটিক খেতে হবে।

পলিসিস্টিক কিডনি রোগ: ডা. ধারস্কারের মতে, পলিসিস্টিক কিডনি রোগ এমন একটি জেনেটিক ব্যাধি যার ফলে কিডনিতে অসংখ্য ছোট ছোট সিস্ট হয়। যদিও এ রোগ পুরুষ এবং নারী উভয়কেই প্রভাবিত করতে পারে, তবে গর্ভাবস্থায় নারীদের হরমোনের পরিবর্তনের ফলে এ ধরনের জটিলতা বাড়তে পারে। পলিসিস্টিক কিডনি রোগের উপসর্গগুলির মধ্যে পেটে ব্যথা, উচ্চ রক্তচাপ, প্রস্রাবে রক্ত এবং ঘন ঘন মূত্রনালীর সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য। কিডনি ভালো রাখতে এবং এর সাথে সম্পর্কিত নানা জটিলতা প্রতিরোধে পলিসিস্টিক কিডনি রোগের লক্ষণ দেখা দিলেই সতর্ক হওয়া প্রয়োজন।

দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগ: ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ এবং অটোইমিউন রোগসহ নানা কারণে দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগের ঝুঁকি বাড়ে। হরমোনের পরিবর্তন এবং কিছু স্বাস্থ্যগত জটিলতার কারণে ৩০ বছরের পর নারীরা দীর্ঘস্থায়ী কিডনি রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকতে পারেন। কিডনি সুস্থ রাখতে এর পেছনের কারণ এবং সেই অনুযায়ী চিকিৎসা নেওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

কিডনি রোগের ঝুঁকির কারণগুলি

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ নারীদের মধ্যে কিডনি রোগ বাড়ার কয়েকটি কারণ উল্লেখ করেছেন। যেমন-

উচ্চ রক্তচাপ: ৩০ বছরের বেশি বয়সী নারীদের কিডনি রোগের সাধারণ ঝুঁকির কারণগুলির মধ্যে একটি হচ্ছে উচ্চ রক্তচাপ। অনিয়ন্ত্রিত উচ্চ রক্তচাপ কিডনি রোগের ঝুঁকি বাড়ায়।

ডায়াবেটিস: উচ্চ রক্তচাপ ছাড়াও, ডায়াবেটিস কিডনি রোগের ঝুঁকির আরেকটি কারণ। অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস কিডনির রক্তনালীগুলিকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।

স্থূলতা: অতিরিক্ত ওজন কিডনির উপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করে এবং কিডনির কার্যকারিতা নষ্ট করে।

 

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট