চট্টগ্রাম শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

ওষুধ খেয়েও কাশি না কমায় ভুগতে পারেন মারাত্মক কোনো রোগে   

অনলাইন ডেস্ক

৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ | ১১:২৪ অপরাহ্ণ

দীর্ঘকালীন কাশির নেপথ্যে থাকতে পারে আরও কিছু মারাত্মক শারীরিক সমস্যা। শুধু শীতকাল বলে নয়, সারা বছর ধরেই কাশি নিয়ে নাজেহাল থাকেন অনেকেই। কাশি বেশি দিন জিইয়ে রাখা ঠিক নয়।

ওষুধ খেয়ে, সুরক্ষা নিয়েও যদি কাশি না কমে তা হলে কিন্তু সে বিষয়ে বাড়তি নজর দেওয়া প্রয়োজন। ঠাণ্ডা লাগাই কাশির একমাত্র কারণ নয়। কাশির নেপথ্যে থাকতে পারে আরও কিছু মারাত্মক শারীরিক সমস্যা।

 

ব্রঙ্কিয়াল অ্যাজমা: চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষূধ খাচ্ছেন। ঠাণ্ডা যাতে না লাগে তারও সব রকম চেষ্টা করছেন। তা সত্ত্বেও যদি কাশি না কমে, তা হলে অতি অবশ্যই অ্যাজমা পরীক্ষা করিয়ে নিন। ব্রঙ্কিয়াল অ্যাজমার একটি অন্যতম উপসর্গ হল কাশি।

করোনা: বাড়বাড়ন্ত কিছুটা কমলেও করোনা একেবারে বিদায় নেয়নি। স্বাস্থ্য দপ্তরে দেওয়া পরিসংখ্যান তেমনটাই বলছে। করোনার বেশ কয়েকটি উপসর্গের মধ্যে একটি হল কাশি। কোভিড কমে গেলেও কাশি থেকে যাচ্ছে। তাই সুরক্ষা নেওয়া সত্ত্বেও কাশি না কমলে এক বার কোভিড পরীক্ষা করিয়ে নিতে পারেন।

 

ক্যানসার: দীর্ঘদিন ধরে কাশি হয়েই যাচ্ছে? ঠাণ্ডা লাগলে এমন হয়ে থাকে। তবে সাধারণ ঠাণ্ডা লাগা বলে সব সময় কাশির মতো সমস্যা এড়িয়ে না যাওয়াই ভাল। অনেক দিন ধরে কাশি না কমার আরও একটি কারণ হল ফুসফুসের ক্যানসার। ফুসফুসের ক্যানসারের ক্ষেত্রে কোনও কারণ ছাড়াই কাশি হতে দেখা যায়। প্রায় বছরভর লেগে থাকে কাশির সমস্যা।

টিবি: দীর্ঘদিন ধরে কাশি না কমার আরও একটি কারণ হতে পারে টিউবারকিউলোসিস বা টিবি বা যক্ষ্মা। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, কাশি মানেই যক্ষ্মা নয়। তবে যক্ষ্মা মানে কিন্তু কাশি। জ্বর, শারীরিক দুর্বলতার পাশাপাশি যক্ষ্মা রোগের অন্যতম একটি উপসর্গ খুসখুসে কাশি।

 

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট