চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২১ জানুয়ারি, ২০২৩ | ২:১৯ অপরাহ্ণ

ঠান্ডা-সর্দির সমস্যাগুলো দূর করবে যে চা

শীতের সময় হুটহাট ঠান্ডা লাগা, গলা খুসখুস করা বা সর্দির মতো সমস্যাগুলো লেগেই থাকে। ঠান্ডার অস্বস্তিতে আরাম পেতে একটি বিশেষ ধরনের চা বানিয়ে ফেলতে পারেন। তবে এই চা বানানোর আগে প্রয়োজন স্পেশাল এক ধরনের মসলা। জেনে নিন কীভাবে মসলা প্রস্তুত করবেন এবং সেটি দিয়ে চা বানাবেন।

 

 

সবুজ এলাচ ২০ গ্রাম বা ৩ টেবিল চামচ, ১০ গ্রাম দারুচিনির টুকরা, ২ টেবিল চামচ মৌরি, ১ টেবিল চামচ কালো গোলমরিচ, ১ চা চামচ লবঙ্গ, ৪টি বড় বা কালো এলাচের ভেতরের অংশ, ১ টেবিল চামচ তুলসী পাতা ও ছেঁচে নেওয়া ১টি জায়ফল গরম প্যানে টেলে নিন একসঙ্গে। লো মিডিয়াম আঁচে সময় নিয়ে ভাজবেন। সুগন্ধ বের হতে শুরু করলে নামিয়ে ঠান্ডা করে নিন।

 

 

৪০ গ্রাম শুকনো আদা ছেঁচে খানিকটা গুঁড়া করে লো মিডিয়াম আঁচে ভেজে নিন। শুকনা আদা না থাকলে আদা গুঁড়া ব্যবহার করতে পারেন ৩ টেবিল চামচ। কিছুক্ষণ ভেজে নামিয়ে ঠান্ডা করুন। আগে ভেজে রাখা মসলার সঙ্গে মিশিয়ে গ্রাইন্ডারে গুঁড়া করে নিন সব। একটি মুখবন্ধ কাচের বয়ামে রেখে দিন এই মসলা। এক থেকে দেড় মাস পর্যন্ত এই মসলা দিয়ে চা বানাতে পারবেন।

 

 

যেভাবে মসলা ব্যবহার করে বানাবেন চা

 

তিন জনের জন্য চা বানাতে একটি মগে ৩ টেবিল চামচ চিনি ও ৩ টেবিল চামচ গুঁড়া দুধ নিন। চামচ দিয়ে নেড়ে মিশিয়ে আধা কাপ কুসুম গরম পানি মেশান। ভালো করে মিশিয়ে রেখে দিন এক সাইডে।

 

 

চুলার মিডিয়াম আঁচে পাত্র বসিয়ে ২ কাপ পানি দিন। ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। বলক চলে আসলে ৩ টেবিল চামচ চা পাতা দিন ও ১ চিমটি লবণ দিন। চুলার জ্বাল কমিয়ে লো মিডিয়াম করে ৩ থেকে ৪ মিনিট ঢেকে রাখুন পাত্র। এরপর চামচ দিয়ে নেড়ে আবারও ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন ৪ মিনিটের জন্য। লিকার চলে আসলে দুধের মিশ্রণ ও আধা চা চামচ চায়ের মসলা দিন। আরও দুই মিনিট ঢেকে রাখুন পাত্র। এরপর নামিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম।

 

পূর্বকোণ/আরএ

 

 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট