চট্টগ্রাম সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

সর্বশেষ:

সর্বোচ্চ ট্যারিফ পরিশোধ ও জাহাজ হ্যান্ডলিং করে পুরস্কৃত হল ইন্টারপোর্ট শিপিং এজেন্ট

বিজ্ঞপ্তি

১ ডিসেম্বর, ২০২৩ | ৯:১৩ অপরাহ্ণ

মোংলা বন্দরে সর্বোচ্চ সংখ্য জাহাজ হ্যান্ডলিং এবং সবচেয়ে বেশি ট্যারিফ পরিশোধ করায় পুরস্কৃত হয়েছে ইন্টারপোর্ট শিপিং এজেন্ট লিমিটেড। আজ শুক্রবার মোংলা বন্দরের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেকের কাছ থেকে ক্রস্ট গ্রহণ করেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানজিল আহমেদ রুহুল্লাহ।
এসব উপস্থিত ছিলেন, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মীর এরশাদ আলী, সরকারি পদস্থ কর্মকর্তা, সামরিক বেসামরিক কর্মকর্তা, বন্দরের পদস্থ কর্মকর্তা, বন্দর ব্যবহারকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, শিপিং এজেন্ট এসোসিয়েশনের নেতা, মোংলা প্রেস ক্লাব সদস্য, সিবিএ নেতা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।
প্রসঙ্গত, ২০২২-২০২৩ অর্থবছরে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ ৮২৭টি জাহাজ হ্যান্ডেল করে। এরমধ্যে ইন্টারপোর্ট শিপিং এজেন্ট একাই ২০৪টি জাহাজ হ্যান্ডলিং করে। যা মোট জাহাজ হ্যান্ডলিংয়ের প্রায় ২৫ শতাংশ। একই সাথে প্রতিষ্ঠানটি মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষকে সর্বোচ্চ সংখ্যক ট্যারিফ পরিশোধ করে।
এদিকে মোংলা বন্দরের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বন্দর সদর দপ্তর মোংলা ও খুলনাস্থ বন্দর এলাকায় আলোকসজ্জা করা হয়। রাত ১২টা ১ মিনিটে বন্দরে অবস্থানরত দেশী-বিদেশী সব জাহাজে এক মিনিট বিরতিহীন হুইসেল বাজানো হয়। বন্দরের অগ্রগতি কামনা করে সব মসজিদে দোয়া মোনাজাতের আয়োজন করেন বন্দর কর্তৃপক্ষ।
উল্লেখ্য, ১৯৫০ সালের ১ ডিসেম্বর চালনা বন্দর নামে সুন্দরবনের পাশে পশুর নদীর পাড়ে স্থাপিত হয় এই সমুদ্রবন্দর। ওই বছরের ১১ ডিসেম্বর ব্রিটিশ বাণিজ্যিক জাহাজ ‘দি সিটি অব লিয়নস’ মোংলা বন্দরে প্রথম নোঙর করে। সমুদ্রগামী জাহাজ নোঙরের ক্ষেত্রে মোংলা বেশি সুবিধাজনক হওয়ায় ১৯৫৪ সালে চালনা থেকে বর্তমান স্থানে আনা হয়। এরপরও মোংলা বন্দর দীর্ঘদিন ধরে চালনা নামেই পরিচিত ছিল।
বন্দর প্রতিষ্ঠার পর প্রথমে চালনা অ্যাঙ্কর পরবর্তীতে ১৯৭৮ সালে চালনা পোর্ট কর্তৃপক্ষ ও সর্বশেষ ১৯৮৬ সাল থেকে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে।

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট