চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪

চবির ভর্তি পরীক্ষা : মানতে হবে যে ৮ নির্দেশনা

অনলাইন ডেস্ক

১৬ মে, ২০২৩ | ১১:২১ পূর্বাহ্ণ

‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে আজ মঙ্গলবার (১৬ মে) থেকে শুরু হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষ স্নাতক ভর্তি পরীক্ষা। আগামীকালও ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে। এবার চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ হাজার ৯২৬টি আসনের বিপরীতে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ লাখ ৫৬ জন। ভর্তি পরীক্ষা চলবে ২৫ মে পর্যন্ত।

সোমবার (১৫ মে) বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রক্টর নূরুল আজিম সিকদার জানান, ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা নিশ্চিতে পুলিশ সদস্য থাকবেন ৩৫০ জন, ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ও অগ্নি নির্বাপক সদস্য থাকবেন ৩০ জন, রেলওয়ে পুলিশ থাকবে ৩০ জন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তাকর্মী থাকবেন ১৩০ জন। এ ছাড়া সাদা পোশাকেও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও দায়িত্ব পালন করবেন।

পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মানতে হবে ৮ নির্দেশনা। নির্দেশনাগুলো হল-

১. প্রবেশপত্রের নির্দেশনা অনুযায়ী পরীক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে লগইন করে ভর্তি পরীক্ষার ৪৮ ঘণ্টা আগে থেকে নিজ আসনের অবস্থান জানতে পারবেন। আসন বিন্যাস দেখার আগে অবশ্যই প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে।

২. প্রত্যেক পরীক্ষার্থীর ডাউনলোড করা দুই কপি প্রবেশপত্র, পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি ছবি (প্রবেশপত্রে আঠা/পিন দিয়ে লাগিয়ে) ও উচ্চমাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার মূল নিবন্ধন সনদ ভর্তি পরীক্ষার দিন অবশ্যই সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে।

৩. পরীক্ষার হলে পরীক্ষার্থীরা এফএক্স-১০০ বা এর নিচে সাধারণ মানের (মেমোরি অপশন ছাড়া) ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবেন। পরীক্ষার হলে পরীক্ষার্থীর সঙ্গে মুঠোফোন, ক্যালকুলেটর (মেমোরি অপশন/সিম থাকা), ইলেকট্রনিক ডিভাইস আছে এমন ঘড়ি ও কলম বা যেকোনো ধরনের ডিভাইস রাখা নিষিদ্ধ।

৪. ক্যাম্পাসে আসা সব পরীক্ষার্থী, অভিভাবকসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সার্বক্ষণিক মাস্ক পরতে হবে।

৫. করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে একজনের বেশি অভিভাবক ক্যাম্পাসে আসতে পারবেন না।

৬.প্রশ্নপত্র ফাঁস–সংক্রান্ত বিষয়ে কারও কাছে কোনো অভিযোগ দৃষ্টিগোচর হলে তা প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটে নির্ধারিত পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের সময়ের ন্যূনতম এক ঘণ্টা আগে প্রমাণাদিসহ সংশ্লিষ্ট ইউনিট কো-অর্ডিনেটরের কাছে লিখিত অভিযোগ করা যাবে। এ সময়ের পরে পরীক্ষা বা প্রশ্নপত্র–সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ গ্রহণ করা হবে না।

৭. ভর্তি পরীক্ষায় কোনো অনিয়ম দেখা গেলে তাৎক্ষণিকভাবে কর্তব্যরত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

৮. নিরাপত্তার স্বার্থে পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে আসা অভিভাবককে তাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্র অথবা নিজস্ব পরিচয়পত্র (যদি থাকে) সার্বক্ষণিক সঙ্গে রাখতে হবে। এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

এবারে ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষার্থী ৭৪ হাজার ৬শ ৫৯ জন। পরীক্ষা হবে ১৬ ও ১৭ মে। ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষার্থী ৫২ হাজার ৯শ ৯৫ জন। পরীক্ষা হবে ১৮ ও ১৯ মে। ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষার্থী ১৯ হাজার ৯শ ৯৯ জন। পরীক্ষা হবে ২০ ও ২১ মে।

‘ডি’ ইউনিটের পরীক্ষার্থী ৪৯ হাজার ১শ ৭৮ জন। পরীক্ষা হবে ২২ ও ২৩ মে। ‘বি১’ উপ-ইউনিটের পরীক্ষার্থী ১৩শ ৮২ জন এবং ‘ডি১’ উপ-ইউনিটের পরীক্ষার্থী ১৮শ ৪৩ জন। পরীক্ষা হবে যথাক্রমে ২৪ ও ২৫ মে।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট