চট্টগ্রাম বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

প্রথম ধাপে আবেদন করা যাবে ২৩ মে পর্যন্ত

আজ শুরু হচ্ছে আবেদন

একাদশে ভর্তি ভর্তি শুরুর আগেই সব ব্যয়ের হিসাব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে ঝুলিয়ে দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

১২ মে, ২০১৯ | ২:৪০ পূর্বাহ্ণ

আজ রবিবার থেকে একাদশ শ্রেণির ভর্তির আবেদন শুরু হচ্ছে। তিনটি ধাপে চলবে আবেদন কার্যক্রম। প্রথম ধাপে আবেদন করা যাবে ২৩ মে পর্যন্ত। পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদনকারীদেরও এই সময়ের মধ্যে আবেদন করতে হবে। যেসব শিক্ষার্থীদের ফল পরিবর্তন হবে তারা ৩ ও ৪ জুন পুনরায় আবেদনের সুযোগ পাবে। এবছরও অনলাইন ও মোবাইল ফোনে এসএমএসের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া চলবে। গতবারের ন্যায় অনলাইনে সর্বনি¤œ ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি কলেজ বা সমমানের প্রতিষ্ঠানে আবেদন করা যাবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর জাহেদুল হক।
প্রথম ধাপে আবেদন করা যাবে ২৩ মে পর্যন্ত। এই পর্যায়ে আবেদনকারীদের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ জুন। দ্বিতীয় পর্যায়ে আবেদন করা যাবে ১৯ ও ২০ জুন। ২১ জুনই এই আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে। তৃতীয় ধাপে আবেদন নেয়া হবে ২৪ জুন। ফল প্রকাশ করা হবে ২৫ জুন। ২৭ থেকে ৩০ জুন শিক্ষার্থীদের নির্বাচিত কলেজে ভর্তি হতে হবে। ১ জুলাই শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু করা হবে।
চলতি বছর একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে ইচ্ছামতো ভর্তি ফি, সেশন চার্জ, উন্নয়ন ফিসহ কোনো ধরনের ফি আর আদায় করতে পারবে না কলেজ কর্তৃপক্ষ। ভর্তি শুরুর আগেই সব ব্যয়ের হিসাব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নোটিশ বোর্ড ও ওয়েবসাইটে ঝুলিয়ে দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এছাড়া, কলেজ বা সমমানের প্রতিষ্ঠানকে তাদের ভর্তি সংক্রান্ত সকল তথ্য ওয়েবসাইট এবং নোটিশ বোর্ডে প্রকাশ করতে হবে বলে একাদশ শ্রেণির ভর্তি নীতিমালায় উল্লেখ রয়েছে।
এ সম্পর্কে চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর মো. জাহেদুল হক জানান, ‘এবার একাদশ শ্রেণির ভর্তিতে অনেকগুলো পরিবর্তন এসেছে। তারমধ্যে ভর্তির জন্য কলেজ পাওয়ার পর শিক্ষার্থীদের ভর্তি নিশ্চায়ন (রেজিস্ট্রেশন) করতে হবে। এর জন্য ফি বাবদ ১৮৫ টাকার বদলে ১০ টাকা বাড়িয়ে ১৯৫ টাকা, বিলম্ব ফি ৫০ টাকার বদলে ১০০ টাকা, পাঠ বিরতি বা ইয়ার লস শিক্ষার্থীদের ১০০ টাকার বদলে ১৫০ টাকা ফি দিতে হবে। এছাড়াও ভুয়া ভর্তি ও নিশ্চয়ন বন্ধে একটি মোবাইল, একটি আবেদন ও আবেদনে অভিভাবক হিসেবে বাবা অথবা মায়ের জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর যুক্ত করার একটি অপশন রয়েছে।
তিনি আরো জানান, ‘অনলাইনে সর্বনি¤œ ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি কলেজ বা মাদরাসায় আবেদন করা যাবে। এর জন্য নেয়া হবে ১৫০ টাকা। মোবাইল ফোনে প্রতি এসএমএসে একটি করে কলেজে আবেদন করা যাবে। এর জন্য ১২০ টাকা দিতে হবে। শিক্ষার্থীরা যাতে কলেজ নির্বাচনের সময় সবকিছু বিবেচনা করে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।
নীতিমালায় একাদশ শ্রেণিতে সেশন চার্জসহ ভর্তি ফি মফস্বল/পৌর (উপজেলা) এলাকায় এক হাজার টাকা, পৌর (জেলা সদর) এলাকায় দুই হাজার টাকা, ঢাকা ছাড়া অন্যান্য সব মেট্রোপলিটন এলাকায় তিন হাজার টাকা ধার্য করা হয়েছে। তবে মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে পাঁচ হাজার টাকার বেশি আদায় করা যাবে না। মেট্রোপলিটন এলাকায় অবস্থিত আংশিক এমপিওভুক্ত বা এমপিওবহির্ভূত শিক্ষকদের বেতন-ভাতা হিসেবে শিক্ষার্থীদের ভর্তির সময় ভর্তি ফি, সেশন চার্জ ও উন্নয়ন ফিসহ বাংলা মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৯ হাজার টাকা এবং ইংরেজি ভার্সনে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। অনলাইনে আবেদনের জন্য ওয়েবসাইট এর ঠিকানা িি.িীরপষধংংধফসরংংরড়হ.মড়া.নফ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট