চট্টগ্রাম শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

চট্টগ্রামসহ চার বিভাগে ঈদের দিন ভারী বৃষ্টির আভাস

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৫ জুন, ২০২৪ | ১১:২১ পূর্বাহ্ণ

আজ পহেলা আষাঢ়। শুরু হয়েছে ভরা বৃষ্টির মৌসুম আষাঢ় মাস। আর দু’দিন পরই ১৭ জুন (সোমবার) পবিত্র ঈদুল আজহা। বর্ষা মৌসুম হওয়ায় গত এক সপ্তাহের বেশি সময় দেশে বৃষ্টির আভাস দিয়ে আসছে আবহাওয়া অফিস। সে অনুযায়ী, ঈদের দিনও দেশের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ শাহনাজ সুলতানা বলেন, এখন মনসুন মৌসুম, সে অনুযায়ী সারাদেশে কমবেশি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এখন যেভাবে যাচ্ছে ঈদের দিন সেভাবে থাকতে পারে। সে ক্ষেত্রে ঈদের দিনও বৃষ্টির আভাস রয়েছে। তবে অঞ্চলভেদে বৃষ্টির পরিমাণ কম বেশি হতে পারে। বিশেষ করে চট্টগ্রাম বিভাগসহ রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি রয়েছে। এসময় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

এদিকে, আজ সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায়, ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হতে পারে। তবে তাপপ্রবাহ এখনো কিছু জায়গায় অব্যাহত রয়েছে। গতকাল দিনভর চট্টগ্রামের আকাশ মেঘলা ছিল। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নগরীতে ঝুম বৃষ্টি হয়েছে। তবে দিনের বেলায় কোথাও ভারী বৃষ্টির খবর পাওয়া যায়নি। রাতের বৃষ্টির পরিমাণসহ গণনা করে গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে সাত মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

 

গতকাল চট্টগ্রামের তাপমাত্রা: সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

 

আজকের সূর্যাস্ত ও সূর্যোদয়: সূর্যাস্ত হবে সন্ধ্যা ৬টা ৩৯ মিনিটে এবং আগামীকাল সূর্যোদয় হবে ভোর ৫টা ৯ মিনিটে।

 

জোয়ার-ভাটা: কর্ণফুলী নদীতে প্রথম জোয়ার শুরু হয় রাত ১টা ২১ মিনিটে এবং প্রথম ভাটা শুরু হবে আজ সকাল ৭টা ২৮ মিনিটে। দ্বিতীয় জোয়ার শুরু হবে বেলা ১টা ৫৩ মিনিটে। দ্বিতীয় ভাটা শুরু হবে রাত ৭টা ৪৫ মিনিটে। এসময় চট্টগ্রাম নদী বন্দরকে এক নম্বর নৌ সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

পূর্বকোণ/এসএ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট