চট্টগ্রাম শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪

সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে বাক্‌প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর হত্যা, যুবকের মৃত্যুদণ্ড

অনলাইন ডেস্ক

২৮ মে, ২০২৪ | ৮:৫৪ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে এক বাক্‌প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের দায়ে মো. জালাল (২৮) নামে এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে এক লাখ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

আজ (২৮ মে) মঙ্গলবার চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৫ এর বিচারক মোহাম্মদ ওসমান গণি এ রায় দেন।

 

জালাল কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন হোয়াইক্যং এলাকার মো. সিদ্দিকের ছেলে এবং নিহত তরুণী কক্সবাজারে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের নজির আহম্মদের মেয়ে।

২০১৫ সালের ১৯ মার্চ নগরের চান্দগাঁও থানাধীন শহীদ কলোনি এলাকার ভাড়া বাসায় ওই তরুণীকে ধর্ষণের পর হত্যা করে তার মরদেহ ফ্যানে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার করে আসামি জালাল। পেশায় পোশাক শ্রমিক জালাল তার স্ত্রী ও প্রতিবন্ধী তরুণীকে নিয়ে ওই ভাড়া বাসায় থাকতেন।

 

ট্রাইব্যুনালের কৌঁসুলি অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান আজাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত করতে পারায় আসামিকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামি জালাল আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

 

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, একই এলাকার পূর্ব পরিচিত হওয়ায় জালালের মাধ্যমে ২০১৫ সালের ২ মার্চ চট্টগ্রাম শহরে আসেন ওই তরুণী এবং তাকে জালালের বাসায় রাখা হয়। পরে তরুণীকে পোশাক কারখানায় চাকরি পাইয়ে দেয় জালাল।

 

ওই বছর ১৯ মার্চ জালালের স্ত্রী ঘরে না থাকার সুযোগে বাক্‌প্রতিবন্ধী নারীকে একা পেয়ে ধর্ষণের পর হত্যা করে তার লাশ বাসার ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখে। পরে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বলে তার বাবাকে ফোনে জানায় জালাল। ঘটনার দুদিন পর ২১ মার্চ নগরের চান্দগাঁও থানায় জালালকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন ওই তরুণীর বাবা।

 

 

পূর্বকোণ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট