চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে মাদ্রাসাছাত্রকে বলাৎকারের চেষ্টা, ৩ শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

২১ মার্চ, ২০২৪ | ২:৪৪ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের আকবরশাহ থানাধীন দারুল উলুম তাহাফিজুল কুরআন মাদ্রাসার এক ছাত্রকে বলাৎকারের চেষ্টার ঘটনায় আদালতে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় তিন মাদ্রাসার শিক্ষকসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৬/৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। মাদ্রাসার তিন শিক্ষক হলেন- মোহাম্মদ নুরুল আলম (২৫), মোহাম্মদ নুর উদ্দীন (৩৫) ও মোহাম্মদ মুরাদ (২৭)।

বুধবার (২০ মার্চ) চট্টগ্রাম আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৪ মামলাটি দায়ের করা হয়। পরে ট্রাইব্যুনাল-৪ এর ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেন বিষয়টি সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ মার্চ দারুল উলুম তাহফিজুল কুরআন মাদ্রাসার এক ছাত্রকে বলাৎকারের চেষ্টা করেন নুরুল আলম নামের এক শিক্ষক। ওই শিশু পরদিন বিকেলে বাসায় গিয়ে তার মাকে বিষয়টি জানায়। তবে বিষয়টি ধামাচাপা দিতে সহযোগিতা করেন ওই মাদ্রাসার আরেক শিক্ষক মুরাদ ও প্রধান শিক্ষক নূর উদ্দিন।

ভিকটিমের পিতা জানান, গত ৪ মার্চ বিকেলে বিষয়টি আমার সন্তান আমাদের জানালে পরদিন ৫ মার্চ উত্তেজিত হয়ে মাদ্রাসার পরিচালক ও প্রধান শিক্ষক নূর উদ্দিন, হাফেজ নুর আলম, সহকারী শিক্ষক মুরাদ মিয়া তাকে মারধর করেন এবং মোবাইল দিয়ে মাথায় আঘাত করেন। বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করার পর কোন সমাধানের পথ খুঁজে না পেয়ে থানায় মামলা করতে গেলে থানাও আমাদের কাছ থেকে কোনো মামলা গ্রহণ করেনি। এরপর স্থানীয়ভাবে বিচার না পেয়ে গত ২০ মার্চ আদালতে মামলা দায়ের করেছি।

মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী চৌধুরী মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম আজাদ বলেন, আকবরশাহ থানার দারুল উলুম তাহফিজুল কুরআন মাদ্রাসার এক ছাত্রকে বলাৎকারের ঘটনায় গত ২০ মার্চ তার মা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। ট্রাইব্যুনাল-৪ এর ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসেন মামলাটি সিআইডিকে তদন্ত করার নির্দেশ দেন।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট