চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

আটকের পর বিটকয়েন আত্মসাৎ, চট্টগ্রামের ৬ পুলিশ বরখাস্ত

অনলাইন ডেস্ক

১৪ মার্চ, ২০২৪ | ৫:২১ অপরাহ্ণ

একব্যক্তিকে আটকের পর তার মোবাইল থেকে কোটি টাকার বিট কয়েন সরিয়ে নেওয়ার অভিযোগে চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা পুলিশের ৬ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

চট্টগ্রামের পুলিশ কমিশনার কৃষ্ণপদ রায় এ আদেশ দেন। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করারও নির্দেশ দিয়েছেন বলে আজ বৃহস্পতিবার বিষয়টি জানিয়েছেন অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (জনসংযোগ) স্পীনা রানী প্রামাণিক।

বরখাস্ত পুলিশ সদস্যরা হলেন- সিএমপি গোয়েন্দা বিভাগের উত্তর জোনের এসআই আলমগীর হোসেন, এএসআই বাবুল মিয়া, মো. শাহ পরাণ জান্নাত, মঈনুল হোসেন, কনস্টেবল জাহিদুর রহমান ও আব্দুর রহমান। এছাড়া পরিদর্শক রুহুল আমিনের কাছে ওই ঘটনার ব্যাখ্যা তলব করা হয়েছে।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি গোয়েন্দা পুলিশের (উত্তর-দক্ষিণ জোন) একটি দল বায়েজিদ বোস্তামী থানার গুলবাগ আবাসিক এলাকায় অভিযান চালিয়ে ‘অনলাইনে জুয়া খেলার অভিযোগে’ আবু বক্কর ছিদ্দিকী ও ফয়জুল আমিন নামে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে। পরে তাদের আদালতে হাজির করা হয়।

আদালত থেকে ছাড়া পেয়ে আবু বক্কর অভিযোগ করেন, তাকে আটকের পর মনসুরাবাদ ডিবি কার্যালয়ে আটক রাখা হয়েছিল। সেখানে তার মোবাইলের ‘বাইন্যান্স অ্যাপ’ ব্যবহার করে ২ লাখ ৭৭ হাজার ডলারের কিপ্টোকারেন্সি এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ৫ লাখ করে মোট ১০ লাখ টাকা সরিয়ে ফেলা হয়।

এ নিয়ে গত ১ মার্চ ‘ফ্রিল্যান্সারকে মামলা ও ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে সাড়ে তিন কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার’ খবর প্রকাশিত হয় সংবাদ মাধ্যমে। এরপর তিন সদস্যের কমিটি গঠন করে নগর পুলিশ। ওই কমিটির প্রতিবেদনের পর ছয়জনকে বরখাস্তের আদেশ এল।

পূর্বকোণ/আরআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট