চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

সমাজে অবদানের জন্য ২২ নারী পেলেন ইমার্জিং উইমেন অ্যাওয়ার্ড

বিজ্ঞপ্তি

১১ মার্চ, ২০২৪ | ১:০০ অপরাহ্ণ

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের স্বেচ্ছাসেবী সাংস্কৃতিক সংগঠন ফ্যাশন ফর লাইফের ৭ম আসরে উদীয়মান নারী ব্যক্তিত্বদের ‘ইমার্জিং উইমেন অ্যাওয়ার্ড ২০২৪’ প্রদান করা হয়েছে।

শনিবার (১০ মার্চ) রাতে চিটাগাং ক্লাবে এই আসর বসে। অনুষ্ঠানে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পরিবেশনায় নাচ গান আর র‌্যাম্প শো পরিবেশিত হয়েছে। এতে ৩০ জন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে নতুন পোশাক ও শিক্ষাসামগ্রী বিতরণ করা হয়। সমাজের নানাক্ষেত্রে অবদানের জন্য ২২ নারীকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

ফ্যাশন ফর লাইফের সভাপতি আনিস ওয়ারেসী ও প্রোগ্রাম চেয়ারম্যান শিহাব সাগীরের স্বাগত বক্তব্যে শুরু হয় অনুষ্ঠান। মহিউদ্দিন মাসুমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের উপস্থাপনায় ছিলেন ইমতু রাতিশ ও ফারহানা খান যুঁথি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত সাংবাদিক দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল ইউনিভার্সিটি উপ–পরিচালক ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, ঘাসফুলের চেয়ারম্যান ড. মজুরুল আমিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি সালাউদ্দিন মোহাম্মদ রেজা, দৈনিক আজাদীর চিফ রিপোর্টার হাসান আকবর, বারকোড রেস্টুরেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল হক, এনএইচটি হোল্ডিংস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানসির তাইমুর মোর্শেদ, রোটারি জেলার ডেপুটি গভর্নর মো. আব্দুর রাজ্জাক, বিজিসি ট্রাস্ট ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা ও গণমাধ্যম বিভাগের চেয়ারম্যান ইয়াসির সিলমি, চট্টগ্রাম আওয়ামী যুবলীগের সহ সম্পাদক ইব্রাহিম খলিল নিপু, বেসরকারি কারাপরিদর্শক ইয়াসির আরাফাত কচি, জেন্ট এক্সেসরিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জহির উদ্দিন, সাজ্জাদ বিন খালেদ, ফোম মাস্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহেদা ইয়াসমিন, চট্টলকুড়ি ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাজীব চৌধুরী, নৃত্যশিল্পী শুভ্রা বিশ্বাস, সাংবাদিক ফেরদৌস শিপন, নগরফুলের প্রতিষ্ঠাতা বায়েজিদ সুমন।

ভিন্ন ভিন্ন ক্যাটাগরিতে সম্মাননাপ্রাপ্ত নারীদের হাতে পদক তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এম এ মালেক। আজীবন সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন সানসাইন এডুকেশনের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টি সাফিয়া গাজী রহমান এবং উদ্যোক্তা ও সামাজিক কর্মী রওশন আরা চৌধুরী।

সাফল্যে অনুপ্রেরণা প্রদানের জন্য উইমেন বিহ্যাইন্ড দ্যা ইন্সপাইরেশন পদক পেয়েছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলকের স্ত্রী আরিফ জেসমিন কণিকা। আয়রন লেডি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন নারী সাংবাদিক ডেইজি মউদুদ ও ব্যবসায়ী কাজী ইসরাত জাহান ইভা। অসামান্য সহযোগিতার জন্য উইমেন ফর আউটস্ট্যান্ডিং সাপোর্ট অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন ফাতেমা জোহরা অ্যানি। কৃষি উদ্যোক্তা হিসেবে অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন মেহেনাজ বিলকিস।

এছাড়াও উদীয়মান নারীদের মধ্য থেকে ২২টি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে স্ব স্ব ক্ষেত্রে অবদানের জন্য ‘ইমার্জিং উইমেন অ্যাওয়ার্ড ২০২৪’ প্রদান করা হয়। এবার পদক পেয়েছেন ড. শারমিন সুলতানা, রুনি রহমান, কুন্তলা চৌধুরী, সোনিয়া আজাদ, উম্মে মাইসুন, আসমা বিথী, অঞ্জলী সেনগুপ্তা, তানজিলা আক্তার, পূজা পাল, মিতা রহমান, তাসনুভা আনোয়ার, হুরিল জান্নাত, প্রমি দে, রিয়াংকা, নাবিলা নওয়শিন সূচনা, নুসরাত নাহার রাশমি শিকদার, বিবি ফাতেমা মুক্তা, রাহিলা সুলতানা জুহি, শান্তা ইসলাম রাইসা ও তানজিলা টুইংকেল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এম এ মালেক এমন অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় উদ্যোক্তাদের সাধুবাদ জানান। তিনি বলেন, প্রতি বছর এই ধরনের উদ্যোগ বারবার গ্রহণ করা হলে আমাদের নারীরা সামাজিক কর্মকাণ্ডে এগিয়ে আসার অনুপ্রেরণা পাবে। পাশাপাশি অন্যদের জন্যও উদাহারণ হবে। যা সমাজে একটি ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। ইমার্জিং উইমেন অ্যাওয়ার্ডের আহ্বায়ক ডা. সাবরিনা তাসনিম জানান, উন্নয়নে নারীর অসামান্য অবদানকে তুলে ধরার জন্য এই আয়োজন। এমন সম্মাননা ঘরে–বাইরে উভয়ক্ষেত্রে নারীকে স্পৃহা যোগাবে।

 

 

পূর্বকোণ/এসি

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট