চট্টগ্রাম শনিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৪

সর্বশেষ:

অগ্নি নিরাপত্তা অ্যাওয়ার্ড পেল বিএম কন্টেইনার ডিপো

বিজ্ঞপ্তি

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ | ৮:৩৩ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে হঠাৎ বিস্ফোরণে ধ্বংসস্তুপে পরিণত হওয়া বিএম কন্টেইনার ডিপো এখন আধুনিক ও অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থাসম্পন্ন প্রতিষ্ঠান। ২০ মাসের মাথায় স্বমহিমায় ঘুরে দাঁড়িয়েছে দেশের খ্যাতনামা ব্যবসায়িক শিল্প পরিবার স্মার্ট গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের সিস্টার কনসার্ন প্রতিষ্ঠানটি। যার স্বীকৃতি হিসেবে ‘ইসাব সেফটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২৪’ পেয়েছে বিএম কন্টেইনার ডিপো। আবাসিক ভবন, বাণিজ্যিক ভবন, শিল্প-আরএমজি ও শিল্প সেক্টরে নিরাপত্তায় শ্রেষ্ঠত্বের অংশ হিসেবে এ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। বুয়েট, কুয়েটের অধ্যাপক ও দেশের প্রথিতযশা স্থপতিবৃন্দের বিচারক প্যানেল এই পুরস্কার চূড়ান্ত করেন।

 

গত সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত ‘৯ম আন্তর্জাতিক ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপো ২০২৪’ অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটিকে পুরস্কৃত করা হয়।

 

ইলেকট্রনিক সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইসাব) কর্তৃক শিল্প বিভাগে প্রতিষ্ঠানটি এই স্বীকৃতি পান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপির হাত থেকে সেফটি এক্সিলেন্স ট্রপি গ্রহণ করেন স্মার্ট গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন মাইনুল আহসান।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বক্তব্যকালে এই ডিপোটি দ্রুত সময়ের মধ্যে ঘুরে দাঁড়ানোর পাশাপাশি দেশের অফডক প্রাঙ্গণে বিশ্বমানের অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করায় প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পর্ষদকে বিশেষভাবে প্রশংসা করেন।

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষ, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অথরিটি ডিজি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাইন উদ্দিন, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন, এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহ-সভাপতি আমিন হেলালী।

 

বিএম কন্টেইনার ডিপো লিমিটেড বাংলাদেশের প্রথম শিল্প যেখানে সাধারণ ফায়ার ডিটেকশন, ফায়ার হাইড্রেন্ট এবং স্প্রিংকলার সিস্টেম ছাড়াও ডিপোর ২৪ একর ইয়ার্ড এবং ওয়ারহাউজ এলাকাজুড়ে অ্যালকোহল প্রতিরোধী ফোম ফায়ার ফাইটিং সিস্টেম ইনস্টল করা হয়েছে। সবধরনের বিপজ্জনক পণ্য হ্যান্ডলিং করার জন্য আইএমডিসি কোড অনুসারে রাসায়নিক সুরক্ষা বাড়াতে ডিপোর ওয়ারহাউজগুলোতে তিন’শটি রাসায়নিক ডিটেক্টরও ইনস্টল করা হয়েছে। বর্তমানে ডিপোটিতে একজন ফায়ার ও সিভিল ডিফেন্স অথরিটির সাবেক কর্মকর্তার নেতৃত্বে নিজস্ব ফায়ার ব্রিগেড রয়েছে। স্মার্ট গ্রুপ রাসায়নিক, পলিমার এবং এলপিজি শিল্পের অগ্নি নিরাপত্তা ব্যবস্থাপকে আধুনিকরণের জন্য বিদ্যমান ফায়ার হাইড্রেন্ট সিস্টেমের পাশাপাশি অ্যালকোহল প্রতিরোধী ফোম সিস্টেম ইনস্টল করার পদক্ষেপ নিয়েছে।

 

বিএম কন্টেইনার ডিপোর নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন মাইনুল আহসান বলেন, অগ্নি দুর্ঘটনার পর নতুন লে-আউটে পুরো ডিপোটি আধুনিকায়ন করা হয়েছে। সার্ভিস ও কোয়ালিটির দিক থেকে এই ডিপোটি বাংলাদেশ ছাড়াও দক্ষিণ এশিয়ার মডেল ডিপো হিসেবে সামনে থাকবে। একটি ভিশন নিয়ে আমরা এগুচ্ছি। ইতোমধ্যে তার এই ভিশন বাস্তবায়নের জন্য নিরাপত্তা, টিমওয়ার্ক, কাস্টমার ভেল্যু বিশ্বাসযোগ্যতাকে প্রাধান্য দিয়েই কাজ করছি। যার স্বীকৃতিও মিলেছে।

 

পূর্বকোণ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট