চট্টগ্রাম শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

সর্বশেষ:

বিধিমালা সংশোধনে মাস্টারপ্ল্যানে দিক-নির্দেশনা দেওয়া যেতে পারে

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ | ৪:৫৭ অপরাহ্ণ

সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে কাজ শুরু করা হলে যখন তখন সিটি কর্পোরেশনের রাস্তা কাটা লাগে না। নগরীতে যত ধরনের ইউটিলিটি সংযোগ আছে, সবগুলো নির্দিষ্ট একটা লাইনে করতে হবে।

১৬৫ কিলোমিটার যে খালগুলো আছে সেগুলোর দুই পাশে যদি রাস্তা করা যায় তাহলে নগরীতে প্রায় তিনশ কিলোমিটারের নতুন রাস্তা তৈরি করা যাবে। এখন করা না হলেও আগে থেকে প্রস্তুতি নিয়ে রাখা উচিত। আগে থেকে সেভাবে প্রস্তুতি নিয়ে রাখলে সেখানে ঘরবাড়ির অংশ পড়বে না। তাতে পরবর্তীতে আর সমস্যা হবে না।
মাস্টারপ্ল্যানে রোড, ফুটপাত, আইল্যান্ড ইত্যাদির সেকশন আগে থেকে যদি আলাদা আলাদা নিয়ে রাখা যায় তাহলে বাস্তবায়ন সহজ হবে। পে পার্কিংয়ে যেতে হবে। অন্তত নগরীর গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এবং জায়গাগুলোতে এই পার্কিংয়ের ব্যবস্থা খুব জরুরি হয়ে পড়েছে। ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালু করা দরকার। একসময় নগরীর বহদ্দারহাট পর্যন্ত নৌকা চলে আসতো। যদিও এখন তা কল্পনা যায় না।

 

১৯৯৫ এর মাস্টারপ্ল্যানে পতেঙ্গায় দেড়শ একর জমি বরাদ্দ ছিল ট্যুরিজমের জন্য। চট্টগ্রামে রমনা পার্কের মতো বড় কোন পার্ক নেই। চীনে বড় বড় পার্কগুলোর নিচে মার্কেট তৈরি করা হয়েছে। উপরে বিশাল খোলা মাঠ, নিচে মার্কেট। সেভাবে না হলেও চট্টগ্রামে একটি বড় সিটি সেন্টার থাকা দরকার। কারণ দেশের বাইরে থেকে যখন মানুষ আমাদের চট্টগ্রামে আসবে তখন সিটি সেন্টার দেখতে চাইবে।

 

চট্টগ্রামে বড় কোন বাস টার্মিনাল নেই। যা আছে তা যথাযথ না। ওয়ান সিটি টু টাউন খুব ভালো একটি কনসেপ্ট। পতেঙ্গার আওতাধীন যে রোডটি আছে সেখানে খুব যানজট থাকে। বিশেষ করে ছুটির দিনে। চার লেনের সড়কের দু’পাশে লোকাল রোডও প্রয়োজন। যাতে লোকাল যানবাহন যানজট সৃষ্টি না করে।

 

চট্টগ্রামে ৪০টি স্লুইস গেট করা হচ্ছে। মানুষ যে পরিমাণ অসচেতন, তা বলার বাইরে। যত্রতত্র ময়লা ফেলে। বাড়ির এমন কোন ময়লা আবর্জনা নেই যে নালায় ফেলে না। যার কারণে সেগুলো গিয়ে স্লুইস গেটে আটকে যায়। এর জন্য আলাদা গার্বেজ ট্রেক বসানোর পরিকল্পনা করতে হবে।

 

ভবন পরিকল্পনার ক্ষেত্রে সবকিছু পরিকল্পনা করে অনুমোদন দেয়া উচিত। মিনিমাম ২০ ফিট রোড না হলে ভবন নির্মাণের প্ল্যান যেন দেয়া না হয়। সিটি কর্পোরেশন অনেক সময় পাঁচ ফিট রোডও তৈরি করে দিতে হয়। বিধিমালা সংশোধনের বিষয়ে মাস্টারপ্ল্যানে দিক-নির্দেশনা দেওয়া যেতে পারে।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট