চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

সর্বশেষ:

‘অদম্য কর্মস্পৃহাই’ আমাদের এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা

পাঠক-ভালোবাসায় সিক্ত পূর্বকোণ ঊনচল্লিশে

নিজস্ব প্রতিবেদক

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ | ১১:০৩ পূর্বাহ্ণ

মুজিববর্ষে দেশসেরা আঞ্চলিকের স্বীকৃতিপ্রাপ্ত দৈনিক পূর্বকোণ ঊনচল্লিশে পদার্পণ করলো। পাঠকপ্রিয়তাকে পুঁজি করেই আজ ১০ ফেব্রুয়ারি ৩৮ বছর অতিক্রম করেছে দৈনিক পূর্বকোণ। ১৯৮৬ সালের এই দিনে যাত্রা শুরু হয়েছিল দৈনিক পূর্বকোণের। এই আটত্রিশ বছরে আমরা হারিয়েছি আমাদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরী ও সম্পাদক স্থপতি তসলিমউদ্দিন চৌধুরীকে। সময়ের আবর্তে আরো হারিয়েছি আমাদের অনেক সহকর্মীকে। যারা দৈনিক পূর্বকোণের প্রসার ও প্রচারে অক্লান্ত পরিশ্রম করে গেছেন। মূলত মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরীর দূরদর্শিতায় দৈনিক পূর্বকোণের আজকের এই অবস্থান।

 

এই দিনে আমরা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরী ও স্থপতি তসলিমউদ্দিন চৌধুরীসহ সকলকে। আধুনিক সংবাদপত্রের স্বপ্নদ্রষ্টা চট্টলদরদী মোহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরী চট্টগ্রামের সুখ-দুঃখ, সমস্যা ও সম্ভাবনার চিত্র তুলে ধরতে প্রতিষ্ঠা করেন দৈনিক পূর্বকোণ। চট্টগ্রামে ডেইরি শিল্পের উন্নয়ন ও চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা তাঁর একান্ত প্রচেষ্টার ফসল। প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র বঙ্গবন্ধু মৎস্য হেরিটেজ হালদা নদীকে এ পর্যায়ে নিয়ে আসার ক্ষেত্রেও রয়েছে তাঁর অনন্য অবদান। বিআইটি’কে চট্টগ্রাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় (চুয়েট) রূপান্তরের আন্দোলনেও তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। সুদীর্ঘ এই পথচলায় পাঠক, লেখক, এজেন্ট ও শুভানুধ্যায়ীদের অবিরাম সমর্থনে দৈনিক পূর্বকোণ এখন বৃহত্তর চট্টগ্রামের লাখো পাঠকের আস্থার প্রতীক, সর্বাধিক প্রচারিত দৈনিক। সুচিন্তিত ও পরিকল্পিত পদক্ষেপে পূর্বকোণ দেশের পূর্বাঞ্চলীয় জনপদে বিশেষ প্রভাব রেখেছে যার স্বীকৃতিও মিলেছে সেরা আঞ্চলিক দৈনিক হিসাবে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ, অনুসন্ধানী প্রতিবেদন, আকর্ষণীয় ফিচার, ক্রীড়া ও সংস্কৃতির তথ্যচিত্র উপস্থাপনের মাধ্যমে পূর্বকোণ সহজেই পাঠকের মন জয় করে নেয়। চট্টগ্রামসহ দেশের প্রায় সবকটি সামাজিক-সাংস্কৃতিক-সর্বজনীন কর্মউদ্যোগকে প্রণোদনা দিতে থাকে পূর্বকোণ। ফলে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার জরিপে দেশের আঞ্চলিক দৈনিকগুলোর মধ্যে সেরা বলে উল্লেখ করা হয় পূর্বকোণকে।

 

১৯৯৪ সালে বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মূল্যায়নে পূর্বকোণকে সেরা দৈনিক হিসেবে উল্লেখ করা হয়। এরপর বিসিডিজেসি’র পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা, ইউএসএআইডি’র অর্থায়নে, এআরডি’র ‘স্থানীয় সরকার উদ্যোগ’-এর সহায়তায় আঞ্চলিক দৈনিক পত্রিকা হিসেবে দৈনিক পূর্বকোণকে ২০০৪ সালের সেরা দৈনিকের স্বীকৃতি দেয়া হয়। ২০২১ সালে মুজিববর্ষে দেশসেরা আঞ্চলিক পত্রিকা হিসেবে বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের স্বীকৃতি পায় দৈনিক পূর্বকোণ।

 

চট্টগ্রামের রয়েছে পৃথক সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য। তাই এবার ৩৮ বছরপূর্তি ও ৩৯ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও দৈনিক পূর্বকোণ আজ থেকে প্রকাশ করছে ৫ দিনব্যাপী ধারাবাহিক বিশেষ সংখ্যা ‘পরিকল্পিত চট্টগ্রাম নগরী চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ শীর্ষক থিম বেইজড ধারাবাহিক বিশেষ সংখ্যা। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দি পূর্বকোণ লিমিটেডের চেয়ারম্যান জসিমউদ্দিন চৌধুরী ও দৈনিক পূর্বকোণ সম্পাদক ডা. ম রমিজউদ্দিন চৌধুরী অগণিত পাঠক ও শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন এবং দৈনিক পূর্বকোণের প্রকাশনায় অতীতের মত ভবিষ্যতেও সকলের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট