চট্টগ্রাম শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪

অগ্নিসংযোগ ও নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তুলুন: সুজন

বিজ্ঞপ্তি

১৪ নভেম্বর, ২০২৩ | ৮:৩২ অপরাহ্ণ

অগ্নিসংযোগ ও নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর ১৪ দলের সমন্বয়ক ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন।

 

সংবিধান অনুযায়ী আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবিতে আজ মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) বিকেলে দারুল ফজল মার্কেট চত্বর থেকে গণপ্রচারণার শুরুতে উক্ত আহ্বান জানান তিনি।

 

শুরুতে আনুষ্ঠানিক বক্তব্যে সুজন বলেন, নির্বাচন কমিশন যখনই বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করেছে তখনই এ নির্বাচন বানচালে দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত চক্রটি নির্বাচনে তাদের পরাজয় নিশ্চিত জেনে নির্বাচন বানচালে উঠে-পড়ে লেগেছে। আর তাদেরকে পিছন থেকে শক্তি যোগাচ্ছে একটি বিদেশি রাষ্ট্র। কিন্তু তারা ভুলে গিয়েছে যে বাংলাদেশ একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র। ১৯৭১ সালে এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। তাই এ রাষ্ট্র কারো চোখ রাঙানিতে ভয় করে না। বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন সংবিধান মোতাবেক হবেই এবং কোন অপশক্তি যাতে নির্বাচনকে বাধাগ্রস্ত করতে না পারে সেজন্য রাজপথে সক্রিয় রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের সংগঠন ১৪ দল। আর তাই সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠানের দাবিতে গণপ্রচারণায় নেমেছে ১৪ দল নেতৃবৃন্দ।

 

তিনি আরও বলেন, বিএনপি-জামায়াত চক্রটি মাঠের আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে দেশব্যাপী অগ্নিসংযোগ এবং নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে মাঠে নেমেছে। এ প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে তারা জ্বালাও-পোড়াও শুরু করেছে। তাদের অগণতান্ত্রিক ও ধ্বংসাত্মক কর্মসূচিকে আর কোনভাবেই ছাড় দেয়া যাবে না বলে মন্তব্য করেন ১৪ দলের সমন্বয়ক সুজন।

 

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জসিমুদ্দিন বাবুল, ন্যাপের কেন্দ্রীয় প্রেসিডিয়াম সদস্য গাজী আলমগীর কবির, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বেলায়েত হোসেন, ওয়ার্কার্স পার্টি চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরীফ চৌহান, ন্যাপ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মিটুল দাশগুপ্ত, গণআজাদী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি মাওলানা নজরুল ইসলাম আশরাফী, ন্যাপ মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ উল্লাহ মজুমদার, জাতীয় পার্টি (জেপি) চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক ডা. বেলাল মৃধা, ওয়ার্কার্স পার্টি চট্টগ্রাম জেলা কমিটির সদস্য দিদারুল আলম চৌধুরী, বন্দর থানা আওয়ামী লীগ নেতা মোরশেদ আলম, মনিরুল হক মুন্না, হোসেন চৌধুরী সাদ্দাম, হাবিব রহমান, আরাফাত রুবেল, এইচ এম বেলাল উদ্দিন প্রমুখ।

 

পূর্বকোণ/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট