চট্টগ্রাম বুধবার, ০৩ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:০৫ পূর্বাহ্ণ

হারুনুর রশিদ ছিদ্দিকী, পটিয়া

পটিয়ার ছনহরা ইউনিয়নের ৩টি সড়কে কালভার্ট না থাকায় এলাকায় জলাবদ্ধতা

পটিয়া উপজেলার ছনহরা ইউনিয়নের ৩টি সড়কের পানি নিষ্কাশনের জন্য কোন কালভার্ট নেই। এ কারণে কয়েক হাজার একর জমিতে জলাবদ্ধতায় চাষাবাদ ব্যাহত হচ্ছে।

বর্ষাকালে রাস্তার ওপর পানি প্রবাহিত হওয়ায় কার্পেটিং, ব্রিক সলিং ও কাঁচা রাস্তা ভেঙে বড় বড় গর্তে পরিণত হয়েছে। এলাকার জনসাধারণ রাস্তায় চলাচলে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। এতে সরকারের লাখ লাখ টাকাও অপচয় হচ্ছে। সড়কগুলোতে কালভার্ট নির্মাণের মাধ্যমে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করে জলাবদ্ধতা দূর করে চাষাবাদের উপযোগী করার জন্য সরকারের নিকট দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, এ সড়কে পানি চলাচলের কয়েকটি পুরনো নালা থাকলেও এর ওপর বসতি নির্মাণ হওয়ায় বর্ষাকালে এলাকায় জলাবদ্ধতা হয়। এ কারণে ৬/৭ বছর ধরে উক্ত এলাকাগুলোতে ধানি জমিতে কোন চাষাবাদ না হওয়ায় জমিগুলোতে কচুরিপানায় ভরে গেছে। সড়কগুলোতে ৫/৬টি কালভার্ট নির্মাণ করার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।
এ বিষয়ে ছনহরা ইউপি সদস্য মো. রফিক ও জাহেদুল হক জানান, ছনহরা চাটরা বরিয়া এলাকার রামহরি দাশ সড়ক, ছিকন খলিফা মাজার ঠেগঁরপুনি সড়কের দু’পাশে অর্ধশত একর ধানি ও ফসলি জমিতে কোন চাষাবাদ হয়নি। ছনহরা ইউপির ১, ৪ ও ৯ নং ওয়ার্ডে প্রায় ২০ হাজারের বেশি জনসংখ্যা রয়েছে। বর্তমানে ৭/৮ বছর যাবত এলাকার কৃষকেরা কৃষিকাজ বাদ দিয়ে অন্য কাজ করছে। এ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ উপজেলার ছনহরা, কচুয়াই, খরনা ইউনিয়নের চলাচল করে থাকেন। কিন্তু কয়েক বছর ধরে রাস্তার দু’ পাশের পানি চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আশপাশের প্রায় ৫০ একর জমিতে চাষাবাদ ব্যাহত হয়। কালভার্ট না থাকায় বর্ষাকালে রাস্তার ওপর পানি প্রবাহিত হয়ে কয়েকটি গ্রাম পানিতে ডুবে যায়। এ সড়ক ৫টিতে কালভার্ট নির্মাণ এবং রাস্তাটি সংস্কারের জন্য হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের সুদৃষ্টি কামনা করেন তারা।

ছনহরা ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রশিদ দৌলতি জানান, ছনহরা ইউনিয়নের আলমদার পাড়া রাস্তার মাথা থেকে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইদ্রিস মিয়া সড়ক, ছিকন খলিফা (রা.) সড়ক থেকে ভাটিখাইন ঠেগঁরপুনি সড়ক পর্যন্ত এবং চাটরা বরিয়া রামহরি দাশ সড়ক ও কচুয়াই ইউপির ভাইয়ারদিঘির পাড় পর্যন্ত ৩টি সড়ক বৃষ্টির পানিতে ভেঙে গিয়ে রাস্তার কার্পেটিং, ব্রিক সলিং উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তে পরিণত হয়েছে। এ সড়ক দিয়ে ছনহরা ইউনিয়নসহ আশিয়া, কচুয়াই, ভাটিখাইন ইউনিয়নে জনসাধারণের চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ সড়কগুলো দ্রুত সংস্কার ও কয়েকটি কালভার্ট নির্মাণের জন্য হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপির সুদৃষ্টি কামনা করে উপজেলার মাসিক সমন্বয় সভায় চেয়ারম্যান ও ইউএনও হাবিবুল হাসানসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 205 People

সম্পর্কিত পোস্ট