চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

চট্টগ্রামেও ইসির ভোটের প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

৫ অক্টোবর, ২০২৩ | ১২:০৩ অপরাহ্ণ

আগামী নভেম্বর মাসকে ঘিরে বড় প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। চলতি বছরের ডিসেম্বরের শেষ অথবা আগামী বছরের জানুয়ারি নাগাদ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ভোটকেন্দ্রের তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। খসড়া ভোটার তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। চলছে নির্বাচন ও প্রশাসনিক কর্মকর্তাসহ মতবিনিময় সভা এবং প্রশিক্ষণ কর্মশালা।

 

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, চট্টগ্রামে নির্বাচনী এলাকার ভোটকেন্দ্রের তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। ১৬ আসনে এবার ২০২২ ভোটকেন্দ্রে ভোট দেবেন ভোটাররা। নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটের প্রস্তুতি ছাড়া ভোটার হস্তান্তর ও অন্যান্য কাজ অনেকটা শ্লথ করা হয়েছে। তবে নতুন ভোটার ও ভোটার সংশোধনের কাজ চলমান রয়েছে বলে জানান কর্মকর্তারা।

 

নির্বাচন কমিশনের চট্টগ্রাম আঞ্চলিক ও জেলা নির্বাচন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা জানান, নভেম্বর মাসে তফসিল ঘোষণার ইঙ্গিত দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন। তফসিল ঘোষণার আগেই ভোটকেন্দ্র চূড়ান্ত করা হয়েছে। ভোটার তালিকার খসড়া প্রস্তুত ও প্রকাশ করা হয়েছে। তবে তফসিল ঘোষণার পর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

 

নিরপেক্ষ ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছে বিএনপিসহ সমমনা দলগুলো। বর্তমান সরকার ও নির্বাচন কমিশনের অধীনে আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার ঘোষণা দিয়ে রাজপথে আন্দোলন করে আসছে। অপরদিকে, সরকারি দল আওয়ামী লীগ সংবিধান মতে বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়ে অনড় রয়েছে।

 

এতে নির্বাচন নিয়ে সরকারি দল আওয়ামী লীগ ও দেশের অন্যতম বড় দল বিএনপি দীর্ঘদিন ধরে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। নির্বাচন নিয়ে পরস্পর বিরোধী পাল্টাপাল্টি আন্দোলন-সংগ্রাম ও কর্মসূচি পালন করে আসছে। এরই মধ্যে নির্বাচন কমিশন সংবিধান অনুযায়ী চলতি বছরের শেষ দিকে অথবা আগামী বছরের জানুয়ারিতে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এ লক্ষ্যে আগামী মাসে (নভেম্বর মাস) তফসিল ঘোষণার ইঙ্গিত দিয়েছেন নির্বাচন কমিশন।

 

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন। খসড়া তালিকায় চট্টগ্রামের ১৬ আসনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ২০২২টি। ভোটকক্ষের সংখ্যা ১৩ হাজার ৮৫৭টি। ভোটার সংখ্যা ৬৩ লাখ ৯৬১ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ৩২ লাখ ৭৯ হাজার ৬২ জন। মহিলা ভোটার ৩০ লাখ ২১ হাজার ৮৯৯ জন।

 

ইসি কর্মকর্তারা জানান, ভোটকেন্দ্রের তালিকা জেলা নির্বাচন কার্যালয়, উপজেলা নির্বাচন কার্যালয়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদ পর্যায়েও প্রকাশ করা হয়। তফসিল ঘোষণার পর ভোটার সংখ্যা চূড়ান্ত করা হবে।

 

নির্বাচন কর্মকর্তারা জানান, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে ভোটের কার্যক্রম গোছানো হচ্ছে। ভোটার সংখ্যা ও ভোটকেন্দ্রের তালিকা চূড়ান্ত করার পর এখন কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদেরও প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা আগে তফসিল ঘোষণার পর করা হতো। এবার তফসিল ঘোষণার আগ থেকেই ভোটের কার্যক্রম গুছিয়ে আনা হচ্ছে।

পূর্বকোণ/পিআর 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট