চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪

চট্টগ্রামে বাসায় তৈরি হচ্ছিল নামীদামি ব্র্যান্ডের প্রসাধনী!

নিজস্ব প্রতিবেদক

২২ জুন, ২০২৩ | ৮:৪৩ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম নগরের ডবলমুরিং থানা এলাকার একটি বাসা থেকে নামীদামি ব্র্যান্ডের নকল প্রসাধনী পণ্য উদ্ধার করা হয়েছে। একইসঙ্গে এসব প্রসাধনী তৈরিতে জড়িত থাকার অভিযোগে বাবা-ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

বুধবার (২১ জুন) রাতে ডবলমুরিংয়ের ধনিয়ালাপাড়া ছোট মসজিদ বাইলেন রোডের একটি বাসায় অভিযান চালায় নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

গ্রেপ্তাররা হলেন- কুমিল্লার তিতাস থানার খলিলাবাদ গ্রামের মো. জালাল (৫৫) ও তার ছেলে মো. আল আমিন (২৮)।

নগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার নিহাদ আদনান তাইয়ান বলেন, ফ্রান্সের বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড লরিয়েল ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু তৈরি হচ্ছিল এই বাসায়। দেখে বোঝার উপায় নেই এটি নকল। শুধু লরিয়েল নয়, ভ্যাসলিন, ডাভ, নিভিয়া, ট্রেসেমে, হেড অ্যান্ড শোল্ডার, ফগ, প্যানটিনের মতো বিখ্যাত সব ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু, বডি ওয়াশ, ফেসওয়াশ, লোশন, সুগন্ধি, শেভিং ক্রিম, বডি স্প্রে তৈরি হচ্ছিল এ বাসায়। বিভিন্ন ভাঙারির দোকান থেকে প্রসাধনী সামগ্রীর বোতলগুলো সংগ্রহ করেন। এছাড়া বিভিন্ন দোকান থেকেও মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধনী সামগ্রীর বোতল কিনে নেন। এরপর বিভিন্ন উপাদান দিয়ে শ্যাম্পু, বডি লোশন, ফেসওয়াশসহ বিভিন্ন প্রসাধনীসামগ্রী তৈরি করে। পরে প্লাস্টিক দিয়ে প্যাকিং করে বাজারে ছাড়েন।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে- প্রতিটি প্রসাধনী সামগ্রী তৈরিতে তাদের খরচ পড়ে ৩৫ থেকে ৫০ টাকা। সেগুলো একশ’ টাকায় ফুটপাতের বিক্রেতাদের কাছে বিক্রি করতেন। নানা ক্ষতিকর উপাদান ও দাহ্য পদার্থ দিয়ে এসব পণ্য তৈরি করা হচ্ছিল। এসব পণ্য ব্যবহারে ত্বকের ক্ষতির পাশাপাশি নানা রোগব্যাধিও ছড়াতে পারে। গ্রেপ্তার দুইজনের বিরুদ্ধে ডবলমুরিং থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

পূর্বকোণ/রাজীব/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট