চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ৩০ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

চট্টগ্রামে এএসপি দম্পতির বিরুদ্ধে দুদকের দুই মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক

৭ মে, ২০২৩ | ৮:১৪ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে অবৈধভাবে সম্পদ অর্জন এবং অসৎ উদ্দেশ্যে সম্পদ গোপনের অভিযোগে এবিএম সাহাদাৎ হোসেন মজুমদার (৬২) নামে এক পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। একই অভিযোগে তার স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা চৌধুরীর বিরুদ্ধে পৃথক মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। রবিবার (৭ মে) দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-১ এর সহকারী পরিচালক এনামুল হক বাদী হয়ে মামলা দুটি দায়ের করেন। 

অভিযুক্ত এবিএম সাহাদাৎ চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সাবেক পেট্রোল পরিদর্শকসহ বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। অবসরের আগে তিনি সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। তার গ্রামের বাড়ি ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার আমজাদহাট এলাকায়। তার বাবার নাম মোশারফ হোসেন মজুমদার। তবে এবিএম সাহাদাৎ নগরের পাহাড়তলীর দক্ষিণ কাট্টলী এলাকায় থাকেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত এবিএম সাহাদাৎ হোসেন অবৈধভাবে ৬৮ লাখ ১৮ হাজার ২৮৭ টাকা উপার্জন করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়। এছাড়া দুদকে জমা দেওয়া সম্পদ বিবরণীতে তিনি ১৮ লাখ ৩২ হাজার ৫২২ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেন। আবার সাহাদাৎ হোসেনের স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা চৌধুরী অবৈধভাবে ৭৫ লাখ ২৬ হাজার ৪৪৮ টাকা উপার্জন করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয় এবং দুদকে দেওয়া সম্পদ বিবরণীতে তিনি ২৭ লাখ ১ হাজার ৮০৪ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন করেন।

দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয়ের উপপরিচালক নাজমুচ্ছায়াদাত বলেন, অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা এবিএম সাহাদাৎ হোসেন দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪-এর ২৬ (২) ও ২৭(১) ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা দায়েরের জন্য গত ১৭ এপ্রিল দুদক প্রধান কার্যালয়ের অনুমোদন পাওয়া গেছে।

 

পূর্বকোণ/রাজীব/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট