চট্টগ্রাম শনিবার, ২৫ মে, ২০২৪

সর্বশেষ:

হঠাৎ ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে ৪ উপজেলায়

নিজস্ব প্রতিবেদক

৫ মে, ২০২৩ | ১:১৮ অপরাহ্ণ

হঠাৎ করেই ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে চট্টগ্রামের চার উপজেলায়। গেল এক সপ্তাহ ধরে আলোচ্য উপজেলাগুলোতে ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বিগ্ন খোদ স্বাস্থ্য বিভাগও। ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণ অনুসন্ধানে ইতোমধ্যে এসব উপজেলায় ‘ডায়রিয়া আউট ব্রেক ইনভেস্টিগেশন’ নামে জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করা হয়েছে। পাশাপাশি সিভিল সার্জন কার্যালয়ে খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুম।
সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুসারে, গেল এক সপ্তাহ ধরে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী, পটিয়া, চন্দনাইশ ও আনোয়ারা উপজেলায় ডায়রিয়ার প্রকোপ অন্যান্য উপজেলার চেয়ে বেশি। এ চার উপজেলায় গড়ে ৪৫ জনের অধিক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। সর্বশেষ গেল একদিনে বোয়ালখালীতে ৫০ জন, চন্দনাইশে ৩৩ জন, পটিয়ায় ৩২ জন ও আনোয়ারায় ২৯ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছেন। যদিও এ সংখ্যা আরও বেশি বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের।
জেলা সিভিল সার্জন মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী জানান, ডায়রিয়ার প্রকোপ রোধে সময়োপযোগী উদ্যোগসহ সংশ্লিষ্ট উপজেলাসমূহ সরেজমিনে পরিদর্শন শেষে ডায়রিয়ায় আক্রান্তের কারণ অনুসন্ধানের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে
ডায়রিয়ার কারণ, বর্তমান ব্যবস্থাপনা, প্রতিরোধের উপায় ও সুপারিশ উল্লেখ করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশন প্রদান করা হয়েছে।
কমিটির সদস্যরা হলেন : ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. ওয়াজেদ চৌধুরী অভিকে সভাপতি, মেডিকেল অফিসার ডা. নুরুল হায়দারকে সদস্য সচিব ও সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা থোয়াইনু মং মার্মাকে সদস্য করা হয়।
এদিকে, ডায়রিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধি ও এ সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে স্বাস্থ্য শিক্ষা কার্যক্রম জোরদারকরণ ও প্রচার প্রচারণা বৃদ্ধিতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী। পাশাপাশি প্রতিটি ইউনিয়নে একটি এবং উপজেলায় পাঁচটি করে মেডিকেল টিম পুনগঠন করতেও নির্দেশ প্রদান করা হয়।
প্রসঙ্গত : গেল একদিনে চট্টগ্রামের ১৪ উপজেলায় নতুন করে ২৬৪ জন ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে মিরসরাইয়ে ১২ জন, সীতাকুণ্ডে ১৮ জন, সন্দীপে ২ জন, ফটিকছড়িতে ১১ জন, হাটহাজারিতে ১৩ জন, রাউজানে ৬ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ১১ জন, বোয়ালখালীতে ৫০ জন, আনোয়ারায় ২৯ জন, পটিয়ায় ৩২ জন, বাঁশখালীতে ১৪ জন, চন্দনাইশে ৩৩ জন, সাতকানিয়ায় ১২ জন ও লোহাগাড়ায় ২১ জন ডায়রিয়া রোগী হাসপাতালে ভর্তি হন।

পূর্বকোণ/এ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট