চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪

’সত্য প্রকাশ করে দ্রুত জনপ্রিয় হয়েছে পূর্বকোণ অনলাইন’

নিজস্ব প্রতিবেদক

৫ মে, ২০২৩ | ১:০২ অপরাহ্ণ

সত্য সংবাদ প্রকাশ করে পূর্বকোণ অনলাইন দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন সিটি মেয়র এম রেজাউল করিম চৌধুরী। তিনি বলেছেন, অনেক পত্রিকা বের হচ্ছে। সবাই পূর্বকোণের মতো মান ধরে রাখতে পারছে না। যারা মানুষের অধিকারের কথা বলে, সত্য উদঘাটন করে, বস্তুনিষ্ঠ ও সত্যনিষ্ঠ খবর প্রকাশ করে তারা সারাজীবন মানুষের হৃদয়ে টিকে থাকে। কখনো হারিয়ে যায় না। পূর্বকোণ অনলাইন সত্য উদঘাটনে ভালো ভূমিকা পালন করছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার পাঠকের কাছে ‘সঠিক সংবাদ সবার আগে’ পৌঁছে দেওয়া জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল পূর্বকোণ অনলাইনের চতুর্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সিটি মেয়র এসব কথা বলেন। আধুনিক প্রযুক্তির সাথে তাল মিলিয়ে সব ধরনের পাঠকের পছন্দ মাথায় রেখে ২০১৯ সালের ৪ মে যাত্রা শুরু করে পূর্বকোণ অনলাইন। দায়িত্বশীল সংবাদ প্রকাশের কারণে পূর্বকোণ অনলাইন শুধু দেশে নয়- বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাস করা বাংলা ভাষাভাষী মানুষের কাছে দ্রুতই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে মেয়র বলেন, যদি আমার সমালোচনা করা হয়, আমি কখনো আপত্তি করি না। আমি মনি করি- আমার কোনো ভুল রয়েছে। আমি সংযত হয়ে যাই। নিজেকে শোধরানোর চেষ্টা করি। পত্রিকার মূল কাজ হচ্ছে- সমাজকে পথ দেখানো। জাতিকে পথ দেখানো। দৃষ্টির অন্তরাল থেকে একটা জিনিসকে সবার সামনে তুলে আনা। পূর্বকোণ এই ক্ষেত্রে ভালো ভূমিকা পালন করছে। ভালো ভূমিকা পালন করেই পূর্বকোণ অনলাইন পাঁচ বছরে পদার্পণ করেছে।
পূর্বকোণ সম্পাদক লেখনীর মাধ্যমে সমাজের চিকিৎসা করছেন জানিয়ে মেয়র রেজাউল বলেন, পূর্বকোণ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা ইউসুফ চৌধুরী চট্টগ্রামের জন্য অনেক কাজ করে গেছেন। তার মৃত্যুর পর সন্তানরা পত্রিকার ঐতিহ্য ধরে রেখেছেন। রমিজ ভাই ডাক্তার। ডাক্তাররা সাধারণত সাংবাদিকতা পেশায় আসেন না। কিন্তু রমিজ ভাইয়ের একটা আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তিনি শুধু মানুষের চিকিৎসা দেন না- তিনি সমাজের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য লেখনীর মাধ্যমে চেষ্টা করে যাচ্ছেন।
সাফল্যের সঙ্গে পঞ্চম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে পূর্বকোণ অনলাইনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান সম্পাদক ডা. ম. রমিজউদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, বিশ্বাসযোগ্যতা এবং জনপ্রিয়তার শীর্ষে থেকে চার বছর শেষ করে আমরা পঞ্চম বর্ষে পদাপর্ণ করেছি। এই পথচলায় যারা অক্লান্ত পরিশ্রম করে পূর্বকোণ অনলাইনকে শীর্ষে নিয়ে গেছেন আমি তাদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পূর্বকোণ অনলাইনের লেখক, পাঠক, শুভানুধ্যায়ীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।
তিনি বলেন, আজকের এই দিনে পূর্বকোণ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মরহুম ইউসুফ চৌধুরীর স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। যিনি অক্লান্ত পরিশ্রম করে পূর্বকোণ পত্রিকা দাঁড় করিয়েছেন। এই কাজে আমাদের প্রথম সম্পাদক কেজি মোস্তফার অবদান ভুলবার নয়। কেজি মোস্তফার পর দীর্ঘ সময় সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করে আমার বড় ভাই স্থপতি তসলিম উদ্দিন চৌধুরী পত্রিকাকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যান।
ডা. ম. রমিজউদ্দিন চৌধুরী বলেন, বড় ভাইয়ের ইন্তেকালের পর মেজ ভাই জসিম উদ্দিন চৌধুরী এবং আমি কাজ করছি। আজকের এই অনুষ্ঠানে আমার মেজভাই, দি পূর্বকোণ লিমিটেডের চেয়ারম্যান, পত্রিকার প্রকাশক এবং ব্যবস্থাপনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী ব্যক্তিগত কারণে দেশের বাইরে থাকায় উপস্থিত হতে পারেননি। আমরা একযোগেই এই পত্রিকা চালাই। সত্য প্রকাশ বজায় রাখার প্রত্যয় নিয়ে সামনে আরো এগিয়ে যেতে চাই।
দৈনিক পূর্বকোণের ইউনিট প্রধান মিহরাজ রায়হানের সঞ্চালনায় পূর্বকোণ সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পূর্বকোণ গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক রাইসিনা চৌধুরী, দৈনিক পূর্বকোণের সিটি এডিটর বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী খান, হেড অব পূর্বকোণ অনলাইন ও রিপোর্টিং ইনচার্জ সাইফুল আলম, সাব এডিটর মোরশেদ আলম, হাসনাত মোর্শেদ, স্টাফ রিপোর্টার মোহাম্মদ আলী, পূর্বকোণ লিমিটেডের জিএম মোজাম্মেল হক জিলানী, হিসাব বিভাগের প্রধান মো. মারুফ, মানবসম্পদ কর্মকর্তা চন্দন শীল, সার্কুলেশন ম্যানেজার তাপস কুমার নন্দী প্রমুখ।

পূর্বকোণ/ এ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট