চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২১ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১১:১১ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইতিবাচক হচ্ছে দেশের পুঁজিবাজার

টানা দরপতন থেকে বেরিয়ে গত সপ্তাহে কিছুটা ঊর্ধ্বমুখীতার দেখা পেয়েছে দেশের শেয়ারবাজার। সবক’টি মূল্যসূচক বাড়ার পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেনের গতিও। একই সঙ্গে দাম বেড়েছে অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। এতে এক সপ্তাহে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) বাজার মূলধন দুই হাজার কোটি টাকার ওপরে বেড়ে গেছে।

 

 

গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে ডিএসই’র বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৫৬ হাজার ৮৪১ কোটি টাকা। যা তার আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৭ লাখ ৫৪ হাজার ৬৯২ কোটি টাকা। অর্থাৎ গত সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধন বেড়েছে ২ হাজার ১৪৯ কোটি টাকা। সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ১১৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বেড়েছে। কমেছে ৬৮টির। আর ২০৭টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

 

 

এতে ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ৫০ দশমিক ৩৯ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৮১ শতাংশ। আগের সপ্তাহে সূচকটি বাড়ে ২১ দশমিক শূন্য ৯ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩৪ শতাংশ। ডিএসই-৩০ সূচক গত সপ্তাহে বেড়েছে ৯ দশমিক ৫৬ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৪৩ শতাংশ। আগের সপ্তাহে সূচকটি ৫ দশমিক ৬৫ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ২৬ শতাংশ বাড়ে।

 

 

বেড়েছে ডিএসই শরিয়াহ সূচকও। গত সপ্তাহে এই সূচকটি বেড়েছে ১০ দশমিক ১৫ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ। আগের সপ্তাহে সূচকটি বাড়ে ৪ দশমিক ৩০ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৩২ শতাংশ। গত সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৩ হাজার ৮৫০ কোটি ৫২ লাখ টাকা। আগের সপ্তাহে ২ হাজার ১২১ কোটি ৪০ লাখ টাকা লেনদেন হয়।

 

 

গত সপ্তাহে ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে জেনেক্স ইনফোসিসের শেয়ার। সপ্তাহজুড়ে কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৯২ কোটি ৫ লাখ ৭৯ হাজার টাকা, যা মোট লেনদেনের ৭ দশমিক ৫৮ শতাংশ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশনের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২১৯ কোটি ৩৩ লাখ ৪৬ হাজার টাকা। ১৬৯ কোটি ৫৬ লাখ ৫ হাজার টাকা লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বসুন্ধরা পেপার।

পূর্বকোণ/আরএ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট