চট্টগ্রাম বুধবার, ০৬ জুলাই, ২০২২

সর্বশেষ:

২২ মে, ২০২২ | ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ

পরীক্ষার যন্ত্র ছাড়াই চলছে চক্ষু বিভাগ

ইমাম হোসাইন রাজু  

চোখ পরীক্ষার প্রাথমিক যন্ত্র স্লিট ল্যাম্প ছাড়াই চলছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের চক্ষু বিভাগ। বিভাগে ৬টি স্লিট ল্যাম্প দিয়ে রোগীদের চোখের প্রাথমিক পরীক্ষা নিরীক্ষা করার ব্যবস্থা থাকলেও দীর্ঘদিন ধরে পাঁচটি যন্ত্রই পুরোপুরি নষ্ট। বাকি যেটি আছে সেটিও এখন অকেজো প্রায়। এমতাবস্থায় বিভাগ ও হাসপাতালের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে নতুন করে আরও ৬টি স্লিট ল্যাম্পের চাহিদা পাঠিয়েছে। যদিও প্রায় দেড় মাস কেটে গেলেও এখন পর্যন্ত কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।
অন্যদিকে, স্লিট ল্যাম্প সংকটের কারণে রোগীদের ‘জোড়াতালি’ দিয়ে চোখের প্রাথমিক সেবা দিয়ে যাচ্ছেন বিভাগের চিকিৎসকরা। যদিও চিকিৎসকরা বলছেন- ল্যাম্প ছাড়াও সেবাদান কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। তবে দ্রুত সময়ের মধ্যে এসব ল্যাম্প পাওয়ার তাগিদ সংশ্লিষ্টদের।
চক্ষু চিকিৎসকরা জানান, স্লিট ল্যাম্প দিয়ে চোখের প্রাথমিক পরীক্ষা করা হয়ে থাকে। যা দিয়ে চোখের কর্নিয়ার অবস্থা পর্যালোচনা করে থাকেন চিকিৎসকরা। এছাড়া অপ্ল্যামেশন দিয়ে চোখের প্রেশার ও অবস্থা চিহ্নিত করা হয়। যা প্রাথমিক পর্যায়ে খুবই প্রয়োজন। কিন্তু যন্ত্র ছাড়া যদি রোগীদের সেবা দেওয়া হয়ে থাকে, তাহলে অনেক ক্ষেত্রেই রোগীদের সন্তুষ্ট করা যায় না, তেমনি সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকও স্বস্তি পান না। তাই এ মেশিন অবশ্যই গুরুত্ব বহন করে।
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের চক্ষু বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. তনুজা তানজিন বলেন, ‘সবগুলো স্লিট ল্যাম্পেই নষ্ট। যার কারণে সেবা দিতে গিয়েও বিড়ম্বনা হচ্ছে। একটি সচল থাকলেও সেটিও তা দিয়ে কোন রকম সেবা দেওয়া হচ্ছে। তাই পরিচালকের কাছে ৬টি স্লিট ল্যাম্পের চাহিদা দেওয়া হয়েছে।’
চমেক হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে চক্ষু বিভাগের ৬ টি স্লিট ল্যাম্প নষ্ট থাকার বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কাছে নতুন মেশিন চাওয়া হয়। চলতি বছরের গত ৪ এপ্রিল হাসপাতালের পরিচালক স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইন ডাইরেক্টর (হসপিটাল সার্ভিসেস ম্যানেজমেন্ট) বরাবর নতুন ৬টি স্লিট ল্যাম্প ও এপ্ল্যামেশন টোনোমেট্রি যন্ত্রের চাহিদা চেয়ে একটি চিঠিও প্রেরণ করা হয়। পাশাপাশি একটি অপারেটিং মাইক্রোস্কপ চাওয়া হয়।
স্বাস্থ্য দপ্তরের পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বৃহত্তম চট্টগ্রামের একমাত্র টার্শিয়ারি হাসপাতাল। রোগীদের উন্নত চিকিৎসার পাশাপাশি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের চাহিদা মোতাবেক শিক্ষা কার্যক্রম আধুনিক ও যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে স্লিট ল্যাম্পসহ চাহিদাকৃত যন্ত্রপাতিগুলো সংগ্রহ ও সরবরাহ করা একান্ত প্রয়োজন। বর্তমানে চক্ষু বিভাগে একটি মাত্র স্লিট ল্যাম্প সচলে আছে। তাও নষ্ট প্রায় বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়। 
এ প্রসঙ্গে সম্প্রতি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শামীম আহসান পূর্বকোণকে বলেন, চক্ষু বিভাগের জন্য নতুন করে আরও ৬টি স্লিট ল্যাম্পের চাহিদা চেয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে চিঠি পাঠানো হয়েছে। আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যেই চাহিদা অনুযায়ী যন্ত্রগুলো পাওয়া যাবে।

পূর্বকোণ/এস 

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট