চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ০৪ মার্চ, ২০২১

সর্বশেষ:

২৬ জানুয়ারি, ২০২১ | ১:০২ অপরাহ্ণ

মোহাম্মদ আলী 

জনরায় পাল্টানোর চেষ্টা করবেন না : শাহাদাত

কাল চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। নির্বাচনী প্রচারণায় বিএনপির মেয়র প্রার্থী ডা. শাহাদাত হোসেন ভোটারের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেরিয়েছেন। করেছেন পথসভাসহ উঠান বৈঠকও। মেয়র নির্বাচিত হলে জলাবদ্ধতামুক্ত চট্টগ্রাম, স্বাস্থ্যকর চট্টগ্রাম, শিক্ষাবান্ধব চট্টগ্রাম, পরিচ্ছন্ন চট্টগ্রাম, নান্দনিক পর্যটন নগর, তথ্য প্রযুক্তি সমৃদ্ধ চট্টগ্রাম গড়াসহ ৯ খাতে ব্যাপক উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ডা. শাহাদাত হোসেন।

নির্বাচনকে সামনে রেখে গতকাল সোমবার তাঁর সাথে কথা হয়। দৈনিক পূর্বকোণকে একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমাদের গণসংযোগ জনসমাবেশে রূপ নিয়েছে। ভোটের জোয়ার উঠেছিল। কিন্তু প্রশাসন ও পুলিশ মিলে এখন এটিকে প্রহসনের নির্বাচনে পরিণত করার চক্রান্ত করছে।’ কিছু অতি উৎসাহী পুলিশ কর্মকর্তা এ পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেন ডা. শাহাদাত। বিএনপির নেতাকর্মীদের ঘরে ঘরে গিয়ে পুলিশ তল্লাশি চালাচ্ছে। তাদের না পেলে পরিবারের নিরীহ লোকজনকে ধরে নিয়ে আসছে। মিথ্যা মামলা দিয়ে কর্মীদের গ্রেপ্তার করছে। নির্বাচনী একটি ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে। ভোটাররা যাতে নির্বাচনী কেন্দ্রে যেতে নিরুৎসাহী হয় এজন্য এ ধরনের পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে। তারপরও প্রতিকূলতার মধ্যেও শেষ পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠে থাকবো।’

ডা. শাহাদাত বলেন, নির্বাচনের প্রচারণায় আমি যে এলাকায় গিয়েছি, বিএনপির প্রতি, ধানের শীষের প্রতি সাধারণ মানুষের জোয়ার দেখেছি। সেই জোয়ার দেখে আওয়ামী লীগের নেতা, মন্ত্রী-এমপিদের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তারা বিএনপির নেতাকর্মীদের পেছনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কতিপয় দলবাজ, অতি উৎসাহী কর্মকর্তা এবং নিজেদের দলের গুন্ডা-মাস্তানদের লেলিয়ে দিয়েছে। আইনের পোশাক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কতিপয় কর্মকর্তা বেআইনি কাজ করছে।

ড. শাহাদাত হোসেন বলেন, বর্তমানে ভোটের পরিবেশ অনেকটাই নষ্ট হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে তারা আদৌ ভোট দিতে পারবে কি না। নির্বাচনকে বানচালের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে আওয়ামী লীগ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আমি পরিষ্কার বলে দিতে চাই, নিরপেক্ষ ভোটের মাধ্যমে জনরায় মানতে বিএনপি প্রস্তুত। ভোটের মাধ্যমে যে রায়ই আসুক বিএনপি স্বাগত জানাবে। তিনি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর উদ্দেশে বলেন, বিএনপির পক্ষে গণসমর্থন-গণজোয়ার দেখে ভীত হয়ে ভোট কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করলে, ভোটারদের ভয়ভীতি দেখিয়ে জনরায় পাল্টানোর চেষ্টা করলে চট্টগ্রামের জনগণ মেনে নেবে না। চট্টগ্রামবাসী আওয়ামী লীগের এ অগণতান্ত্রিক আচরণের কঠোর জবাব দেবে।

তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে ড. শাহাদাত হোসেন বলেন, আমাদের হারাবার কিছু নেই। মামলা-হামলা, গুম-খুন গত ১৪ বছর ধরে আমরা মোকাবেলা করে আসছি। শত প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে আমাদের ভোটকেন্দ্রে থাকতে হবে। মানুষের রায় যাতে কেউ ছিনতাই করতে না পারে, সেজন্য সতর্ক থাকতে হবে। আওয়ামী সন্ত্রাসীদের সন্ত্রাস রুখে দাঁড়াতে হবে। ভোটারদের অনুরোধ করব, আপনারা সকল ভয়ভীতি উপেক্ষা করে ভোটকেন্দ্রে আসুন। দেশকে গণতন্ত্রের ধারায় নিয়ে যেতে চাইলে আপনাদের ভয় উপেক্ষা করে ভোটকেন্দ্রে আসতে হবে, নিজের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে হবে। বিএনপির লাখ লাখ নেতাকর্মী আপনাদের পাশে আছে। আপনাদের রক্ষায় নেতাকর্মীরা বুক পেতে দেবে।

পূর্বকোণ/এএ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 1291 People

সম্পর্কিত পোস্ট