চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

সর্বশেষ:

বন্যায় শিশুসহ দুজনের লাশ উদ্ধার সাতকানিয়ায়, এখনো নিখোঁজ ৩

সাতকানিয়া সংবাদদাতা

৯ আগস্ট, ২০২৩ | ১০:৫৬ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বন্যার পানিতে নিখোঁজ ও নৌকা ডুবির ঘটনায় দু’জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (৯ আগস্ট) ওই উপজেলার মির্জাখীল বার্মা মার্কেট এলাকার পাশের বিল থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

 

উদ্ধারকৃতরা হল- পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের ঘাটিয়াপাড়া এলাকার মফজল উর রহমান ছেলে মোহাম্মদ হেলাল (২০) ও চরতী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মো. সেলিমের মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস (৪)।

 

জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে মোহাম্মদ রনি নামের এক যুবককে সঙ্গে নিয়ে হেলাল মির্জাখীলের বার্মা মার্কেট এলাকায় বন্যার পানি দেখতে যায়। কোমর সমান পানি ভেঙে সড়কে হাঁটতে গিয়ে রনি ও হেলাল দুজনেই পানির স্রোতে ভেসে যান। রনি প্রায় এক কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ সামিয়ার পাড়া এলাকায় একটি গাছের সঙ্গে আটকে প্রাণে বেঁচে যান। তবে হেলাল বন্যার পানিতে ডুবে নিখোঁজ হয়। ২৬ ঘণ্টা পর তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসির আরাফাত পূর্বকোণকে বলেন, বন্যায় হেলাল নামে এক যুবক ভেসে যায়। তার লাশ ভাসমান অবস্থায় পুলিশ উদ্ধার করেছে।

 

অন্যদিকে, একইদিন চরতি সাঙ্গু নদীতে নৌকা ডুবিতে ৬ জন নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় জান্নাতুল ফেরদৌস নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিখোঁজের ২০ ঘণ্টা পর সকালে নদীতে শিশুটির লাশ ভেসে উঠে।

 

এ ঘটনায় এখনো আরও ৩ জন নিখোঁজ রয়েছে। তারা হলেন, চরতী ৭ নম্বর ওয়ার্ডের আব্দুর রহিম (৪৫), মোহাম্মদ সেলিমের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৩) ও কাঞ্চনা ইউনিয়নের মো. আরিফের মেয়ে সানজিদা আক্তার (৪)।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চরতী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান রুহুল্লাহ্ চৌধুরী।

 

তিনি বলেন, বন্যায় সাঙ্গু নদীতে পানি বেশি ছিল। তাই ৬ জন যাত্রী নিয়ে একটি নৌকা ডুবে যায় নদীতে। এ সময় একজনকে উদ্ধার করা হয়। আজ সকালে জান্নাতুল ফেরদৌস নামে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। বাকিদের উদ্ধারে কাজ চলছে।

 

উল্লেখ্য, গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে সাতকানিয়া সরকারি কলেজ সড়কের সমিল এলাকা থেকে বন্যার পানিতে ভেসে যান ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ইদ্রিস। তিনি সাতকানিয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের গোয়াজরপাড়া এলাকার মৃত আবদুর রাজ্জাকের ছেলে। তিনি চট্টগ্রাম নগরীর রাহাত্তারপুল এলাকায় একটি মুদির দোকান করতেন।

 

পূর্বকোণ/মুন্না/জেইউ/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট