চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

৮ জানুয়ারি, ২০২৩ | ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ

উখিয়া সংবাদদাতা

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হেড মাঝিসহ ২ জনকে হত্যা

কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা সন্ত্রাসীদের গুলি ও ছুরিকাঘাতে হেড মাঝিসহ ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

 

নিহতরা হলেন- ৮ নম্বর ক্যাম্প ইস্টের আবদু সোবাহানের ছেলে মো. খলিল (৩৮) ও উখিয়ার পালংখালী ক্যাম্প-১৫ এর মৃত আব্দুল হাকিমের ছেলে মো. রশিদ (৩৬)।

শনিবার (৭ জানুয়ারি) রাতে জামতলী ক্যাম্পে ও আজ রবিবার (৮ জানুয়ারি) ভোরে কুতুপালং ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

 

জানা গেছে, গতকাল শনিবার রাত ৮টার দিকে জামতলী ক্যাম্পের হেড মাঝি মো. রশিদকে তার দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। এরপর রবিবার ভোর ৪টার দিকে কুতুপালং ক্যাম্পে আরসার সন্ত্রাসীরা মো. খলিলকে কৌশলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গুলি করে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

 

আরাকান রোহিঙ্গা সোসাইটির পিস হিউম্যান রাইটর্সের সভাপতি মো. জুবায়ের বলেন, একই রাতে আরসা সন্ত্রাসীরা গুলি ও কুপিয়ে হত্যা করেছে হেড মাঝিসহ ২ জনকে। বর্তমানে ক্যাম্পে সাধারণ রোহিঙ্গারা আতঙ্কে রয়েছে।

 

৮-এপিবিএনের সহকারী পুলিশ সুপার (অপস্ এন্ড মিডিয়া) ফারুক আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

তিনি জানান, রাতে দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরে অবস্থান করছিলেন হেড মাঝি রশিদ। এ সময় মুখে কাপড় বাঁধা ৩ জন ব্যক্তি সেই ঘরে ঢুকে রশিদকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। ছুরিকাঘাতে তার বুকের ডান পাশে, পেটে, তলপেটে, ডান কানের লতিতে এবং বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি কেটে জখম হয়। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- ব্যক্তিগত শত্রুতার জেরে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হতে হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

 

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী ক্যাম্পে পৃথক হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, লাশ দুটি উদ্ধার করে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ক্যাম্প ও আশপাশের আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আসামিদের ধরতে ক্যাম্পে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

পূর্বকোণ/পিআর/এএইচ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট