চট্টগ্রাম সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

সর্বশেষ:

২৫ ডিসেম্বর, ২০২২ | ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ইউসুফ চৌধুরী সম্মাননা পেলেন জামদানি ওস্তাদ জামাল হোসেন

মিহি সুতার বুননে জামদানি শিল্পের কারিগর, জামদানি ওস্তাদ জামাল হোসেন পেয়েছেন পূর্বকোণ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা চট্টলদরদী ইউসুফ চৌধুরীর নামে প্রবর্তিত ‘ইউসুফ চৌধুরী সম্মাননা ২০২১’। বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) উদ্যোক্তা বিষয়ক কার্যক্রম ‘চাকরি খুঁজব না, চাকরি দেব’ এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইনোভেশন এন্ড এন্ট্রাপ্রেনিউরশিপ ডিপার্টমেন্টের যৌথ উদ্যোগে তরুণ উদ্যোক্তাদের এ সম্মাননা দেওয়া হয়।

 

আইপিডিসি নিবেদিত উদ্যোক্তা সম্মাননা ২০২১ অনুষ্ঠানে জামাল হোসেনের হাতে এই সম্মাননা তুলে দেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের সচিব আবু হেনা মোরশেদ জামান, ড্যাফোডিল ফ্যামিলির চেয়ারম্যান মো. সবুর খান ও আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের এডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিজওয়ান দাউদ সামস। অনুষ্ঠানে আরো ১৯টি উদ্যোগের উদ্যোক্তাদের স্মারক ও সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। গতকাল শনিবার ঢাকার ড্যাফোডিল এডুকেশন নেটওয়ার্ক বিল্ডিংয়ে সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন হয়েছে।

 

ইউসুফ চৌধুরী সম্মাননা ২০২১ বিজয়ী জামদানি ওস্তাদ ও পাখি জামদানি উইভিং ফ্যাক্টরির উদ্যোক্তা মো. জামাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে মিহি সুতার বুননে জামদানি তৈরি করছেন। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর বরগাঁও গ্রামের মো. জামাল হোসেনের নেতৃত্ব কারিগরদের দক্ষ হাতের নিপুণ বুননে চিকন সুতার জমিনে ফুটে উঠে বাহারি নকশা। মাত্র হাজার পাঁচেক টাকা পুঁজি নিয়ে শুরু করা জামাল হোসেনের পুঁজি এখন কোটি টাকার বেশি। মানভেদে ৫০ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকায় বিক্রি হয় পাখি উইভিং-এর শাড়ি। তার নিজের হাতে বোনা শাড়ির সর্বোচ্চ দাম পেয়েছেন ছয় লাখ টাকা। ২০০ কাউন্টের শাড়ির বুনন হয় সেখানে।

 

তিনি জানান, নিজের বুননকে এমন উচ্চতায় নিয়ে যাবেন যেন যে কেউ দেখলেই আলাদা করতে পারে তার বুনন। জামাল হোসেনের বুননের জামদানি শাড়ি নিয়মিত পরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাছাড়া তার হাতে গড়া একটি জামদানি শাড়ি লন্ডন মিউজিয়ামে স্থান পেয়েছে বলে অনুষ্ঠানে জানান জামাল হোসেন।

 

উল্লেখ্য, পরিশ্রমী, সৎ, নিষ্ঠাবান উদ্যোক্তা ও পূর্বকোণ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ইউসুফ চৌধুরীর নামে ২০১৬ সাল থেকে এই সম্মাননার প্রবর্তন করা হয়। ইতিপূর্বে এই সম্মাননা পাওয়া মুহম্মদ গাজী তৌহিদুর রহমান ও নাজমা খাতুন পরবর্তী সময়ে জাতীয় এসএমই পুরস্কার পেয়েছেন।

 

অনুষ্ঠানে সিলেটের তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অথল্যাবের উদ্যোক্তা শাহজাহান জুয়েল নুরুল কাদের উদ্যোক্তা সম্মাননা ২০২১ ও উইমেন ইন ডিজিটালের প্রতিষ্ঠাতা আছিয়া খালেদা নীলা লুনা সামসুদ্দোহা নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা ২০২১ অর্জন করেন। এছাড়া নবীন উদ্যোক্তা স্মারক পেয়েছে ফ্রেশি ফার্ম, রোবাস্ট রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড, ব্যঞ্জন, কাদম্বরী এক্সক্লুসিভ, বি বাসিনী, ফ্রেন্ডস কনসালটেন্সি, আমরা পারি এন্টারপ্রাইজ ও স্যাফ্রনের উদ্যোক্তা।

 

উদ্যোক্তা সম্মাননা ২০২১ পেয়েছেন মনস্টারক্ল লিমিটেড, জায়ান্ট মার্কেটার্স, ইনোভেশন গ্যারেজ লিমিটেড, ডায়না হোস্ট লিমিটেড, ব্রাণ্ডিলেন ৩৬০ লিমিটেড, কোডার্স ল্যাব, সোনিয়া’স কিচেন, প্রোটিন মার্কেট লিমিটেড এবং আল- জামিল’স গ্রীল ফিস এন্ড বারবিকিউ এর উদ্যোক্তাগণ। ২০১১ সালের প্রতিষ্ঠার পর ২০১৪ সাল থেকে ‘চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব’ নবীন ও তরুণ উদ্যোক্তাদের সম্মানিত করে আসছে।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট