চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

৩০ নভেম্বর, ২০২২ | ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

পটিয়া সংবাদদাতা

বাস্তবায়নে ১১ শ ৫৮ কোটি টাকার কাজ শুরু

পাউবো’র প্রকল্প উদ্বোধন: আবাদ হবে পটিয়ার ১৩ হাজার হেক্টর জমি

পটিয়ায় পাউবো’র জলাবদ্ধতারোধ, বন্যা নিয়ন্ত্রণ, নিষ্কাশন ও সেচ প্রকল্পের আওতায় ১১ শ ৫৮ কোটি টাকার কাজ শুরু হয়েছে। বুধবার (৩০ নভেম্বর) বিকেল ৩ টায় পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক উপজেলার হাবিলাসদ্বীপ ইউনিয়নের ব্যাংক মাঠ এলাকায় এ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। পরে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বলেন, পটিয়া একটি দ্বীপের মত। পটিয়াকে রক্ষায় চারদিকে বাঁধ নির্মান করা হচ্ছে। যা বাস্তবায়ন হলে এ অঞ্চলের ১৩ হাজার হেক্টর অনাবাদী জমিতে চাষাবাদ হবে। তিনি বলেন, এ প্রকল্পের জন্য স্থানীয় সংসদ সদস্যের বিরক্তের কারণে একপ্রকার বাধ্য হয়েই আমি এটি পাশে সহযোগিতা করেছি। করোনাকালীন সময়ে সারাবিশ্বে তখন থেকেই অর্থনৈতিক মন্দা দেখা দিয়েছিল। সব দেশে উন্নয়নমূলক কাজ স্থবির হয়ে ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনাকালীন সময়েও যেসব প্রকল্প আমরা একনেকে পাঠিয়েছি তা একটিও তিনি ফেরত পাঠাননি। পটিয়ার এ প্রকল্পও তেমন একটি।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পটিয়াকে দেখলে এখন কোন গ্রাম বা উপজেলা মনে হয়না, মনে হয় চট্টগ্রামের পাশে আরেকটি পটিয়া শহর। আপনাদের এ প্রকল্পের কাজ সঠিকভাবে বাস্তবায়িত হলে আপনারা উপকৃত হবেন। এটি যাতে সঠিকভাবে হয় তা আপনারা তদারকি করবেন। প্রকল্প চলাকালীন সময়ে আমি আরোও আসবো।
উদ্বোধকের বক্তব্যে হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এমপি বলেন, এ উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে অত্র অঞ্চলের মানুষের বিশাল একটি স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। পটিয়াবাসী আজীবন কৃতজ্ঞতা জানালেও শেখ হাসিনার এ ঋণ শোধ হবে না। এটি পটিয়াবাসীর আশা ও আবেগের প্রকল্প। এ প্রকল্পে কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না। আগামী এক বছরের মধ্যে ৭৫ ভাগ কাজ দৃশ্যমান হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

 

পাউবো’র দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী প্রামানিকের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মিজানুর রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক মো. ফজলুর রশীদ, পটিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, মেয়র মো.আইয়ুব বাবুল, ইউএনও আতিকুল মামুন, সহকারী পুলিশ সুপার তারিক রহমান, জেলা পরিষদ সদস্য দেবব্রত দাশ, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শিবেন্দু খাস্তগীর, নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মাহবুবুর রহমান, উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী অপু দেব, আকম সামশুজ্জান চৌধুরী, অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, তিমির বরণ চৌধুরী, বিজন চক্রবর্তী, আবু ছালেহ, এম এজাজ চৌধুরী, আশিয়া ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হাসেম, হাবিলাসদ্বীপ ইউপি চেয়ারম্যান ফৌজুল কবির কুমার, কোলাগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক চৌধুরী, ধলঘাট ইউপি চেয়ারম্যান রনবীর ঘোষ টুটুন প্রমুখ।

 

পূর্বকোণ/রবিউল/রাজীব/পারভেজ

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট