চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারি, ২০২৩

সর্বশেষ:

২৬ নভেম্বর, ২০২২ | ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ

এম জাহেদ চৌধুরী, চকরিয়া-পেকুয়া

পেকুয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গা দখল করে দোকান নির্মাণ

পেকুয়া উপজেলার কাটাপাড়ি ব্রিজের পশ্চিম পাশে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) কোটি টাকা মূল্যের ১২ শতক জমি দখল করেছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এভাবে সরকারি জায়গা দখল হয়ে গেলেও রহস্যজনক কারণে নীরব পানি উন্নয়ন বোর্ডের দায়িত্বশীল কর্মকর্তাগণ।

 

সরেজমিনে দেখা যায়, বানৌজা শেখ হাসিনা ঘাঁটি সংযোগ সড়কের পেকুয়া সদর ও মগনামা ইউনিয়নের মধ্যবর্তী কাটাপাড়ি ব্রিজের পশ্চিম পাশে ভোলা খালের চরে মাটি ফেলে ভরাট করে নির্মাণ করা হয়েছে দুইটি দোকান।

 

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, মগনামা ইউনিয়নে মোহাম্মদ ফরিদ, কামাল হোসেন ও পেকুয়া সদর ইউনিয়নের রাশেদুল ইসলামের নেতৃত্বে প্রভাবশালী একটি চক্র পানি উন্নয়ন বোর্ডের মূল্যবান জমিটি দখলে নেন। দখলদাররা ভোলা খালের দুই পাড় প্রতিনিয়ত দখল করে চলেছে। এতে প্রস্থ কমে খালটি ক্রমশ সংকীর্ণ হয়ে আসছে। দেখা দিচ্ছে নাব্যতা সংকট। এভাবে ধীরেধীরে মৃত্যুর দিকে আগাচ্ছে উপজেলার অতি গুরুত্বপূর্ণ এ খাল। কারণ এ খালের ওপর উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ নির্ভরশীল।

 

পাউবোর জমি দখলের অভিযোগ অস্বীকার করে মো. ফরিদ ও রাশেদুল ইসলাম বলেন, পেকুয়া বাজার থেকে শুরু করে অনেকে সরকারি জায়গায় দোকান করেছে । সরকার চাইলে দিয়ে দিব। পেকুয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাহেদুল ইসলাম বলেন, সরকারি জমি দখলের বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে এটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের মালিকানাধীন জমি। জবর দখলের ব্যাপারে তারা ব্যবস্থা নেবে। পানি উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবানের নির্বাহী প্রকৌশলী অরুপ চক্রবর্তী বলেন, রাজস্ব সার্ভেয়ার গিয়ে জায়গার দাগ চিহ্নিত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

পূর্বকোণ/আর

শেয়ার করুন

সম্পর্কিত পোস্ট