চট্টগ্রাম বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

৩১ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:০৫ পূর্বাহ্ণ

রাকিবুল হক

ব্যর্থ প্রেম অনেক কিছুই শিখিয়ে যায়

সম্পর্কের সুখী পরিণতি সব সময়ই কাম্য, কিন্তু এই ব্রেক আপ কি শুধুই কেড়ে নেয়? কিছুই কি দিয়ে যায় না?

(গত সংখ্যার পর)
দুজনের মধ্যে কারও পক্ষে কোন কাজটা করা সম্ভব, আর কোনটা নয় তা জানা প্রয়োজন। সেইসঙ্গে সমাজ আর পরিবারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখতে হবে। সবার সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট করে মঙ্গলগ্রহে গেলেও আপনারা সুখে থাকতে পারবেন না। এটা প্রমাণিত সত্য।

তিক্ত সম্পর্ক থেকে বেড়িয়ে আসতে দ্বিধাবোধ নয় : একটা সম্পর্ক হঠাৎ করেই খারাপ হয়ে যায় না। তার সূত্রপাত হয় অনেক দিন ধরেই। প্রতিনিয়ত হওয়া অশান্তি দেয় তারই ইঙ্গিত। কিন্তু সম্পর্ক বাঁচিয়ে রাখার তাড়নায় আমরা সেই সব ইঙ্গিতকে এড়িয়ে যাই। কিন্তু পরিস্থিতি সহ্যের বাইরে চলে গেলে তা দুজনের পক্ষেই ক্ষতিকর। তাই ক্ষতিকর সম্পর্ক থেকে তিক্ততা বাড়ার আগেই নির্দ্বিধায় সেই সম্পর্ক থেকে বেড়িয়ে যাওয়া ভালো। একটা ব্রেক আপ কিন্তু সেই কঠিন সত্যকেও মেনে নিতে শেখায়।

তৃতীয় ব্যক্তির উপস্থিতি নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে : সম্পর্কে থাকাকালীন যে তৃতীয় কোনো ব্যক্তিকে ভালো লাগতে পারে। অনেক সময় আমরা ধরেই নিই, সঙ্গীর সঙ্গে দারুণ সম্পর্ক বজায় রাখলে কোনো ফাঁক গলে তৃতীয় কেউ আসতে পারে না। এই ধারণা সব সময় ঠিক নয়। দুজনের মধ্যে কোনো অশান্তি বা সমস্যা ছাড়াও যেকোনো সময়
তৃতীয় কেউ ঢুকে পড়তে পারেন সম্পর্কে।

তেমন হলে সঙ্গীর সঙ্গে আলোচনা করুন। ঝগড়া-অশান্তিতে না গিয়ে তার সঙ্গে খোলাখুলি আলোচনায় বুঝে নেওয়ার চেষ্টা করুন সেই আকর্ষণের প্রকৃতি। প্রয়োজন মনে হলে সরে আসুন। ভায়োলেন্ট কোনো ঘটনা ঘটাবেন না।
(শেষ)

The Post Viewed By: 28 People

সম্পর্কিত পোস্ট