চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সর্বশেষ:

৩ আগস্ট, ২০২১ | ১১:৫১ অপরাহ্ণ

অনলাইন ডেস্ক

কর্মীদের প্রেরণা বাড়ানোর কৌশল

বৈশ্বিক মহামারি করোনার দুর্বিপাক সময়ে ঘরে অবস্থান করে কাজ করার অনুপ্রেরণা যোগাতে নেয়া যেতে পারে বিভিন্ন কিছু কৌশল। লকডাউন শিথিল হলেও এখনও অনেকেই ঘরে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। 

জেনে নিন কর্মীদের অনুপ্রেরণা যোগানোর করণীয়

কাজের সময় নির্ধারণে কর্মীদের সুবিধা-অসুবিধা বিবেচনা: চাকরি বলতেই আমরা বুঝি আট ঘণ্টার বাঁধা ধরা রুটিন। এই কড়া রুটিনে কর্মীদের কাজের উদ্যমতা কমায়, সঙ্গে চাকরির প্রতি সন্তুষ্টি কমায়। তবে কর্মঘণ্টায় শিথিলতা থাকলে, কর্মীদের সুবিধা-অসুবিধা বিবেচনার সুযোগ করে দিলে তারা আরও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করবে। পাশাপাশি তা কর্মীদের কাজে আর সৃষ্টিশীল হতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

কাজের ফাঁকে ছোট বিরতি কর্মীদের দক্ষতা ও কাজের প্রতি সন্তুষ্টি বাড়াতে মূখ্য ভূমিকা রাখে । কাজের চাপ থেকে সামান্য বিরতি পেলে একজন নিষ্ঠাবান কর্মী তার কাজ কীভাবে আরও পটু হাতে সম্পন্ন করা যায় সেটা নিয়ে চিন্তা করবে। আর একজন কর্মকর্তা হিসেবে সেই সুযোগও আপনাকে তৈরি করে দিতে হবে। তাই বেঁধে দেওয়া সময়ের মাঝে কাজ শেষ করা চাপ না দিয়ে প্রয়োজনে একটু সময় নিয়ে হলেও নির্ভুল কাজের প্রতি বেশি জোর দিতে হবে।

কর্মীদের উদ্ভাবনী শক্তির মূল্যায়ন: পেশাগত জীবনের একটি ক্ষতিকর দিক হল সেখানে সচরাচর নতুন পদ্ধতিকে, উদ্ভাবনী ধারণাকে সঠিক মূল্যায়ন করা হয় না। একটি কাজ একাধিক পদ্ধতিতে করা যেতে পারে। তাই গতবাঁধা পদ্ধতির বাইরে কেউ যদি নতুন কোনো পদ্ধতি বের করতে পারেন তবে কর্মকর্তাদের উচিত সেটা উড়িয়ে না দিয়ে তার কার্যকারীতা বিচার করা।

বুদ্ধিদীপ্ত আলোচনা: একজন মানুষের পক্ষে সকল বিষয়ে পরিপূর্ণ জ্ঞান ধারণ করা সম্ভব নয়। সবজান্তা মনোভাব থেকে বেরিয়ে এসে সহযোগী সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে সকলের সাথে।

দলবদ্ধ মানসিকতা গড়ে তোলা: কাজ করতে গিয়ে প্রতিষ্ঠানের নতুনতম কর্মীর মাথায়ও একটা বুদ্ধি আসতে পারে। সেই বুদ্ধি সে যদি নিজের কাছেই রেখে দেয় তবে সেটাকে ঘষে মেজে যুগান্তকারী কিছু তৈরি করার সুযোগ হারালেন। তাই কর্মক্ষেত্রে দলবদ্ধ পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে।

কর্মী যেন শুধুই বেতনের জন্য কাজ না করে প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের স্বার্থেও কাজ করে এমন পরিবেশ গড়ে তুলতে হবে। পাশাপাশি নতুন কোনো আইডিয়া বের হওয়ার জন্য প্রতিষ্ঠানের সবাইকে কাজটাকে নিবিঢ়ভাবে বুঝতে হবে। শুধু কাজের চাপে রাখা নয়, তাদের প্রতি কাজ নিয়ে গবেষণা করার সুযোগ দিতে হবে। এতে করে কাজের স্বার্থকতা বজায় রেখে কর্মীরা কাজ করতে উৎসাহ পাবে।

পূর্বকোণ/সাফা/পারভেজ

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 270 People

সম্পর্কিত পোস্ট