চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২১

২০ মে, ২০১৯ | ১:২৬ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

‘সেমিতে খেলবে টাইগাররা’

বিশ্বকাপে ভারত, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার পর চতুর্থ দল হিসেবে সেমি ফাইনালে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশের, এমনটি জানিয়েছে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং ধারাভাষ্যকার আকাশ চোপড়া। বিশ্বকাপের দলগুলোকে নিয়ে ধারাবাহিক বিশ্লেষণে বাংলাদেশকে নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। যদিও এর আগে বাংলাদেশ কখনো বিশ্বকাপের সেমি ফাইনাল খেলেনি, তবে আকাশ চোপড়ার বিশ্বাস বাংলাদেশ এবার ভালো করবে। এর পেছনে তিনি যুক্তি হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন সব শেষ আইসিসি আসর গুলোতে বাংলাদেশ দলের নকআউট রাউন্ডে যাওয়ার সাফল্যকে। মনে করিয়ে দিয়েছেন আগের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলা, এশিয়া কাপের ফাইনালের কথা। তার মতে, এই বিশ্বকাপে কোনো দলই বাংলাদেশকে সমীহ না করে খেলার সাহস দেখাবে না। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে টাইগারদের পারফর্ম কেমন হবে, দলের সেরা অস্ত্র, দলটিই বা কেমন হবে-টাইগারদের এই বিষয়গুলো নিয়ে আকাশ চোপড়ার জানান, ‘বাংলাদেশের পারফরম্যান্স নিয়ে আমি যদি বলি তাহলে মনে করিয়ে দিতে হবে, আগের বিশ্বকাপে (২০১৫) তারা কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছিল। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির (২০১৭) কথা যদি বলি সেবার তারা সেমি ফাইনালে খেলেছিল। আর এশিয়া কাপের তো ফাইনালেই খেলেছিল বাংলাদেশ। এই দলটিকে তারপরও যদি কেউ হালকা করে দেখতে চান, তাহলে সেটি আপনার ব্যর্থতা। বাংলাদেশকে হালকা করে নেবেন না। তারা এই টুর্নামেন্টে দারুণ খেলবে। তারা বিশ্বকাপে ৯টি ম্যাচ খেলবে। তাদের নকআউট পর্বে ধরে রাখতে পারেন।’ ‘তামিম ইকবালকে নিয়ে বাংলাদেশ বাজি রাখতে পারে। বাঁহাতি দারুণ এক ব্যাটসম্যান তামিম। ধারাভাষ্য বক্সে বসে আমি বলতে পারি, সব করতে পারে এই ওপেনার। তামিমের সঙ্গে আছে সৌম্য সরকার আর লিটন দাস। এশিয়া কাপে দারুণ খেলেছিল লিটন দাস, সৌম্য সরকার উপরেও যেমন দুর্দান্ত খেলে ব্যাটিং অর্ডারে নিচেও তেমনি দুর্দান্ত খেলে। পাশাপাশি বোলিংটাও করে, তার কাছ থেকে দলটি ভিন্ন ভ্যারিয়েশন পাবে। সাকিব আল হাসান আর মুশফিকুর রহিম, বাংলাদেশের টপঅর্ডার বেশ ভারী। আর একজনের কথা না বললেই নয়, মাহমুদউল্লাহ। তার কথা মনে আছে, আগের বিশ্বকাপে কী দারুণ সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিল। সাকিব তো রান করবেই, মুশফিক টপক্লাস ব্যাটসম্যান, সেও রান করবে। মাহমুদউল্লাহকে ৫ বা ৬ নম্বরে দেখাটা দারুণ হবে।’ ‘ব্যাটসম্যানদের তালিকায় মোসাদ্দেক হোসেন আছে, সৌম্য সরকার উপরে-নিচে মিলিয়ে খেলতে পারে। এই ব্যাটিং লাইন নিয়ে বাংলাদেশ ২৮০-২৯০ রান করতে পারবে। তাহলে বোলিংয়ে কার উপর ভরসা রাখা যায়? অবশ্যই মাশরাফির উপর। তার বলে গতি কমে গেছে কিন্তু লাইন-লেন্থ আগের মতোই আছে। দারুণ আত্মবিশ্বাসী বোলার সে। রানের চাকা আটকে রাখতে পারে, উইকেট তুলে নিতে পারে। আমার কাছে মাশরাফি টপক্লাস এক বোলার। নেতা হিসেবে সে আরও দুর্দান্ত। মাশরাফির মতো আরেক বোলার মুস্তাফিজুর রহমান। বাঁহাতি এই ফাস্ট বোলার কখনো কাটার দেয়, কখনো স্লোয়ার, কখনো ইয়র্কার দিতে পারে। ডেথ ওভারেও মুস্তাফিজ ভালো।’ ‘রুবেল হোসেন হালকা করে যদি রিভার্স সুইং পেয়ে যায় তাহলে তো কথাই নেই। মেহেদি হাসান মিরাজের বোলিং স্টাইলটা তো দারুণ। ব্যাটিংও ভালো করে। মিরাজ, মোসাদ্দেক ভালো কিছু করতে পারবে। বাংলাদেশের এক্স ফ্যাক্টর কি হতে পারে? এই টুর্নামেন্টে দলের এক্স ফ্যাক্টর একজন না, আমার মতে দুই-তিনজন হতে পারে। মাহমুদউল্লাহ, সে খুবই ভালো খেলোয়াড়। সে ভালো খেললে দল জিততে পারে, তার ফিনিশিং চাটটা খুবই ভালো।
বোলিংটাও তাকে দিয়ে করানো যায়। সাকিবের ফর্মটা দেখুন, ব্যাট হাতে বা বল হাতে যদি পারফর্মটা করতে পারে তাহলে চিন্তা করুন দলটি কতদূর এগিয়ে যাবে।’ ‘আমাকে যদি বাংলাদেশ দল নিয়ে বলতে হয় তাহলে বলবো, এই বিশ্বকাপে বাংলাদেশ সেরা চারে থাকবে। আমার মতে, ভারত, ইংল্যান্ড আর অস্ট্রেলিয়ার পর সেমি ফাইনালে খেলা চার নম্বর দলটি বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকাও ছেড়ে কথা বলবে না। কিন্তু আমি বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখতে চাই তাদের অভিজ্ঞতার জন্য। তারা সেমি ফাইনালে খেলবে।’

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 267 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট