চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২১

২০ মে, ২০১৯ | ১:২১ পূর্বাহ্ণ

এক যুগের ফুটবলে ইতি রোবেন-রিবেরির

এক যুগ ধরে বায়ার্ন মিউনিখের আক্রমণভাগে দেখা গেছে আরিয়েন রোবেন এবং ফ্রাঙ্ক রিবেরিকে। মৌসুম শেষে সে সম্পর্কের ইতি টেনে বিদায় নিচ্ছেন বায়ার্ন মিউনিখ। ২০০৭ সালে অলিম্পিক মার্সেই থেকে ক্লাব রেকর্ড ২৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে বায়ার্নে যোগ দেন রিবেরি। এরপর থেকে এই ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড গড়েছেন কেবল ইতিহাসই। ফ্রাঞ্চের হয়ে ২০০৬ সালে খেলেছেন বিশ্বকাপ ফাইনালও। তবে দুঃর্ভাগ্যবশত হেরে বসেন সে ফাইনাল। তবে বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে কাটিয়েছেন স্বপ্নের মতো ফুটবল জীবন। বায়ার্নের হয়ে ঘরের তুলেছেন সম্ভাব্য সকল শিরোপা। ১২ বছরে খেলেছেন ৪২৩ ম্যাচ। বাভারিয়ানদের হয়ে জিতেছেন ২২টি শিরোপা। রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ২০০৯ সালে বায়ার্নে যোগ দেন আরিয়েন রোবেন। এরপর কেটে গেছে ১০ বছর। আর এই দশ বছর জুড়ে ফুটবল বিশ্ব দেখেছে রোবেনের মহনীয় ফুটবল জাদু। ২০১০ সালে স্পেনের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ফাইনালের হারটা হয়তো রোবেনকে পোড়াবে আজীবন। তবে বাভারিয়ানদের জার্সি গায়ে জড়িয়ে উল্লাসে মেতেছেন সব শিরোপা জয়ের। বায়ার্নের হয়ে ১০ বছরে খেলেছেন ৩০৭টি ম্যাচ। আর এই সময়ে বাভারিয়ানদের দিয়েছেন ১৮টি শিরোপা জয়ের স্বাদ। মৌসুম এবং বায়ার্ন ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচে ঘরের মাঠ এলিয়েঞ্জ এরেনায় খেলতে নামে রোবেন-রিবেরি। লিগ শিরোপা জয়ে এই ম্যাচ জয়ের বিকল্প ছিল না বাভারিয়ানদের কাছে। ম্যাচের ৬১ এবং ৬৭ মিনিটে যথাক্রমে রিবেরি আর রোবেন মাঠে নামেন। বায়ার্ন তখন এগিয়ে ৩-১ গোলে। ৭৭ মিনিটে নিজের শেষ ম্যাচে গোল করেন রিবেরি আর ৭৮ মিনিটে গোল করেন রোবেনও। বায়ার্ন ক্যারিয়ারের ইতি এর থেকে ভাল আর হতে পারতো না এই দুই কিংবদন্তি ফুটবলারের জন্য। শেষ ম্যাচে জয়, গোল করেছেন দলের হয়ে আর সাথে টানা সপ্তমবারের মতো লিগ শিরোপা জয়।

বিজ্ঞাপন

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 257 People

মন্তব্য দিন :

সম্পর্কিত পোস্ট