চট্টগ্রাম রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯

১৯ নভেম্বর, ২০১৯ | ১:০০ পূর্বাহ্ন

স্পোর্টস ডেস্ক

টাইগারদের সামনে দাঁড়াতেই পারলো না নেপাল

ইমার্জিং কাপের সেমিতে বাংলাদেশ

ধারাবাহিকতা ধরে রাখলো বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। প্রথম দুই ম্যাচে হংকং ও ভারতের ইমার্জিং দলকে উড়িয়ে দেয়ার পর এবার নেপালের বিপক্ষেও হেসে খেলে জিতেছেন সৌম্য সরকার-নাজমুল শান্তরা। সাভারের বিকেএসপিতে গতকাল নেপাল ইমার্জিং দলকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই ইমার্জিং এশিয়া কাপের সেমিফাইনালে উঠলো বাংলাদেশ। সেমি-ফাইনালে আফগানিস্তানকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে বাংলাদেশ। সেমি-ফাইনালের অন্য ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত ও পাকিস্তান। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে আগামী বুধবার প্রথম সেমি-ফাইনালের মুখোমুখি হবে ভারত ও পাকিস্তান। পরের দিন একই মাঠে দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে খেলবে বাংলাদেশ।

গতকাল দিনের শুরুতে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। অধিনায়কের সিদ্ধান্ত যে ভুল নয়, প্রমাণ করেন টাইগার বোলাররা। পেসার সুমন খানের তোপ আর সঙ্গে অফস্পিনার তানভির ইসলামের ঘূর্নিতে উইকেটে থিতু হতে পারেনি কোনো নেপালি ব্যাটসম্যান। দলীয় সর্বোচ্চ ৩৮ রানও আসে তার ব্যাট থেকেই। আর এতেই ৪৪.৩ ওভারে ১৩৮ রানে অল আউট হয় নেপালিরা। আর টাইগারদের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় মাত্র ১৩৯ রানের। জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ভালো শুরুর পথে থাকে বাংলাদেশ তবে দলীয় ৩৪ রানে ব্যক্তিগত মাত্র ১১ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান সৌম্য সরকার। এরপর উইকেটে আসেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ওপেনার মোহাম্মদ নাইমকে সঙ্গে নিয়ে ৭৯ রানের জুটি গড়েন শান্ত।

দলীয় ১১৩ এবং ব্যক্তিগত ৪৫ রানে নাইম আউট হয়ে ফিরে গেলে ভাঙে এই জুটি। নাইম ফিরে গেলে তার জায়গায় আসেন ইয়াসির আলী। অধিনায়ক শান্ত তাকে সঙ্গে নিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান। ইয়াসির আলীর সঙ্গে গড়েন ২৭ রানের জুটি। সেই সঙ্গে তুলে নেন নিজের অর্ধশতকও। দলকে ৮ উইকেটের জয় এনে দিয়ে শান্ত অপরাজিত থাকেন ৫৯ রানে।

The Post Viewed By: 28 People

সম্পর্কিত পোস্ট