চট্টগ্রাম শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

১৮ নভেম্বর, ২০১৯ | ১:৪১ পূর্বাহ্ণ

হৃদয়ের রেকর্ড সেঞ্চুরিতে সিরিজ যুবাদের

তৌহিদ হৃদয়ের ব্যাটে রানের প্রবাহ আটকাতে পারল না শ্রীলংকার যুবারা। টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরিতে এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান গড়লেন দেশের হয়ে যুব ওয়ানডেতে সর্বাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ড। সঙ্গে অধিনায়ক আকবর আলির অপরাজিত ফিফটিতে সিরিজ নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশের যুবারা। যুব ওয়ানডে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে শ্রীলংকা অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। ৫ ম্যাচের সিরিজে ৩-০ এ এগিয়ে গেল যুবারা। প্রথম ম্যাচ ভেসে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে গতকাল রোববার ৫০ ওভারে শ্রীলংকা তোলে ২৬০ রান। ১৬ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা। ৯ চার ও ৩ ছক্কায় ১২০ বলে ১১৫ রানের ইনিংস খেলেন হৃদয়। যুব ওয়ানডেতে এটি তার চতুর্থ সেঞ্চুরি।

আগের ম্যাচে অপরাজিত ১২৩ রান করে সেঞ্চুরির রেকর্ডে এনামুল হক বিজয় ও মাহমুদুল হাসান জয়ের পাশে বসেছিলেন হৃদয়। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে করেছিলেন অপরাজিত ৮২ রান। চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যে বাংলাদেশ ৩৭ রানে ২ উইকেট হারানোর পর ক্রিজে নামেন হৃদয়। ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম বিদায় নেন দলীয় ৬৯ রানে। চতুর্থ উইকেটে শাহাদাত হোসেনকে নিয়ে ৬২ রান যোগ করে শুরুর ধাক্কা কাটান হৃদয়। আর পঞ্চম উইকেটে আকবরের সঙ্গে গড়েন ১১০ রানের ম্যাচজয়ী জুটি। হৃদয় যখন আউট হন জয়ের জন্য তখন দরকার ছিল ২০ রান। সিরিজে এবারই প্রথম আউট হলেন হৃদয়। তিন ম্যাচে তার মোট রান ৩২০। অপরাজিত ৬৬ রানের পথে ছক্কা মেরে দলের জয় নিশ্চিত করেন আকবর। এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ ওভারে ৬৯ রানের উদ্বোধনী জুটিতে দুর্দান্ত শুরু করে লঙ্কানরা। টানা দুই বলে দুই ওপেনারকে তুলে নিয়ে স্বাগতিকদের ম্যাচে ফেরান ১৭ বছর বয়সী পেসার তানজিম হাসান সাকিব। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় সফরকারীরা। তাদের ইনিংসে ফিফটি নেই একটিও। তবে সবার ছোট ছোট ইনিংসে আড়াইশ ছাড়ায় লঙ্কানরা। ৫২ বলে সর্বোচ্চ ৪৩ রানে অপরাজিত থাকেন গামাগে দিনুশা। ৫৪ রানে ৩ উইকেট নেন তানজিম। শ্রীলংকার দুজন হন রান আউট। একই মাঠে মঙ্গলবার হবে সিরিজের শেষ ম্যাচটি।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 166 People

সম্পর্কিত পোস্ট