চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯

১২ নভেম্বর, ২০১৯ | ১:২৯ পূর্বাহ্ন

স্পোর্টস ডেস্ক

সিরিজ শেষে বাংলাদেশের তৃপ্তি-অতৃপ্তি

ভারত সফরে যাওয়ার আগে কেউ যদি বলতো বাংলাদেশ দল টি-টোয়েন্টি সিরিজটি হারবে ২-১ ব্যবধানে, তা হলে যে কেউ এটিকে মেনে নিতো দারুণ ফল হিসেবে। কেননা ভারতের বিপক্ষে এর আগে কখনো টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জেতেনি বাংলাদেশ। তার ওপর সাম্প্রতিক অস্থির অবস্থা কাটিয়ে একটি জয় তখন পরিস্থিতি বিবেচনায় টাইগারদের জন্য অনেক কিছু। কিন্তু রোববার সিরিজের শেষ ম্যাচের পর সেই ২-১ ব্যবধানে সিরিজ হারের পর সকলের মনে শুধুই আক্ষেপ আর সুযোগ হাতছাড়া করার আক্ষেপ। কেননা শেষ ম্যাচটি জিতে সিরিজ নিজেদের করে নেয়ার সহজ সুযোগ হেলায় হারিয়েছে বাংলাদেশ। নাইম শেখের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পর আর কেউই দাঁড়াতে পারেননি, যার ফলে হারতে হয়েছে ৩০ রানের ব্যবধানে। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে সিরিজের প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি, তৃপ্তি-অতৃপ্তি নিয়ে কথা বলেছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তার মতে তরুণ তুর্কি নাইম শেখ ও আমিনুল ইসলামদের পারফরম্যান্স বড় তৃপ্তির জায়গা। অন্যদিকে সিরিজ জিততে না পারাটাই অতৃপ্তির। মাহমুদউল্লাহ বলেন, ‘(সিরিজে) তৃপ্তির জায়গা বলতে আমার মনে হয়, নাঈম ও আমিনুলের পারফরম্যান্স। আমাদের বোলিং ইউনিটের পারফরম্যান্স খুব ভালো ছিল। মুশফিকের ম্যাচ জেতানো পারফরম্যান্স ছিল। এগুলো ছিল ইতিবাচক।’ তিনি বলতে থাকেন, ‘আর অতৃপ্তি বলতে গেলে- আমরা প্রথম ম্যাচ জিতেছি। অবশ্যই ভালো একটা মোমেন্টাম পেয়েছিলাম। যেটা আমরা সব সময় ফিল করি- এটাই বাংলাদেশ দলের শক্তি। তারপর ওখান থেকে যখন সিরিজটা হারি, সেদিক থেকে কিছুটা হলেও হতাশাজনক।’ এসময় নাইম শেখের ৪৮ বলে ৮১ রানের ইনিংসের প্রশংসা ঝরে টাইগার অধিনায়কের কণ্ঠে। চাপের মুখে যেভাবে খেলেছেন তরুণ নাইম, তাতে অধিনায়কের কাছ থেকে লেটার মার্কই পেয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে নাইমের এমন ইনিংসের পর ম্যাচ জিততে না পারার হতাশাও শোনা যায় মাহমুদউল্লাহর কণ্ঠে। নাইমের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে টাইগার অধিনায়কের জবাব, ‘এককথায় বললে, খুবই দৃষ্টিনন্দন ছিল ওর (নাইম শেখ) ইনিংসটা। আমার খারাপ লাগছে এত সুন্দর একটা ইনিংস খেলেছে, আমরা ফিনিশ করতে পারিনি। মিডল অর্ডারদের ব্যর্থতা ছিল। এই কারণে আমার হতাশাটা আরও বেশি। সুন্দর একটা ইনিংস খেলেছে, খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। ওর জন্য হলেও আমরা যদি ভালো করে শেষ করতে পারতাম তাহলে ও অনেক ক্রেডিট পেত।’ দীর্ঘদিন পর দলে ফিরে দারুণ বোলিং করেছেন ডানহাতি পেসার আল আমিন হোসেন। তিন ম্যাচেই করেছেন নিয়ন্ত্রিত বোলিং, রান খরচ করেছেন একদম হিসেব করে। মাহমুদউল্লাহর মতে দেশের অন্যতম সেরা টি-টোয়েন্টি বোলার হলেন আল আমিন। তিনি বলেন, ‘আলআমিন অসাধারণ খেলেছে। আমার মনে হয়, ও আমাদের দেশের অন্যতম সেরা টি-টোয়েন্টি বোলার। ব্যক্তিগতভাবে আমি এটা অনুভব করি। ওর আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার দেখলে দেখা যাবে, সব সময় ধারাবাহিক পারফর্ম করেছে। সেদিক থেকে বিশ্বাস ছিল আল আমিন হয়তোবা ভালো করতে পারে।’

The Post Viewed By: 24 People

সম্পর্কিত পোস্ট