চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:০৩ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব ক্রীড়া প্রতিবেদক

আর্থিক অসঙ্গতি রেখেই ফুটবল খেলোয়াড় সমিতির নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা

আর্থিক অসঙ্গতি রেখেই চট্টগ্রাম ফুটবল খেলোয়াড় সমিতির নির্বাচনের তপসিল ঘোষনা করা হয়েছে। গতকাল দুপুরে সমিতির এম এ আজিজ স্টেডিয়ামস্থ কার্যালয়ে আহুত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তপসিল ঘোষনা করেন সমিতির আহ্বায়ক এবং নির্বাচন কমিশনার মো. হাফিজুর রহমান। ঘোষিত তপসিল অনুসারে আগামী ১৫ নভেম্বর চট্টগ্রাম খেলোয়াড় সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে ২০ অক্টোবর থেকে খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশের মাধ্যমে তপশীলের কার্যক্রম শুরু হবে। ১৯৮৩ সালের ১১ মার্চ তারিখে চট্টগ্রাম ফুটবল খেলোয়াড় সমিতি’র জন্মের পর ইতিহাসে এবারই ইতিহাসে প্রথম বারের একেবারে শুদ্ধ এবং স্বচ্ছ পদ্ধতির মাধ্যমে নির্বাচনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এই প্রতিষ্ঠান। তবে বেশ কিছুটা অসঙ্গতি থেকেই যাচ্ছে টাকা পয়সার হিসেবে। এই কমিটি ১৯৯২ সাল থেকে দায়িত্ব নেয়ার পর গত ২৭টি বছর ধরে আয় ব্যায়ের কোন হিসেব নাই। সংবাদ সম্মেলনে হাফিজুর রহমান বলেন, আমি কেবল ৬০৫ টাকা হাতে পেয়েছি এবং পেয়েছি কিছু আসবাবপত্র। বিগত কমিটি কার কাছ থেকে কতো টাকা কি খাতে নিয়েছে বা পেয়েছে এবং কাকে কতো টাকা দিয়েছে তার কোন কাগজ পত্র আমি পাইনি। এছাড়া এসব কাজ করতে কোন সভা হয়েছে কিনা তাও জানানো হয়নি। এদিকে আর্থিক অসঙ্গতির ব্যাপারে একটি কমিটি গঠন করা হলেও সে কমিটি গেল ২/৩ মাসে কোন কাজই করতে পারেনি বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে। আরো বলা হয়েছে, প্রক্রিয়াটি চলমান রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরে আরো বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম ফুটবল খেলোয়াড় সমিতির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জসিম উদ্দিন আহমেদ, দীপক বড়–য়া, আশীষ ভদ্র, এস এম শহীদুল ইসলাম, আ ন ম ওয়াহিদ দুলাল ও শাহাবুদ্দিন মো. জাহাঙ্গীর। এ সময় আরো ২জন সদস্য নজরুল ইসলাম লেদু ও আ ন ম নুরুল কুদ্দুস চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

ঘোষিত তপশীল অনুসারে ২০ অক্টোবর থেকে খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ, ২০, ২১ ও ২২ অক্টোবর খসড়া ভোটার তালিকার উপর আপত্তি গ্রহণ, ২৩ ও ২৪ অক্টোবর খসড়া ভোটার তালিকার উপর দাখিলকৃত আপত্তির শুনানী ও নিষ্পত্তি, ২৫ অক্টোবর চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ, ২৫, ২৬ ও ২৭ অক্টোবর মনোনয়ন পত্র বিক্রি ও দাখিল, ২৮ অক্টোবর দাখিলকৃত মনোনয়ন পত্র বাছাই, ২৯ ও ৩০ অক্টোবর মনোনয়ন পত্র বাতিলের উপর আপত্তি ও শুনানী, ১ নভেম্বর চূড়ান্ত বৈধ মনোনয়ন পত্রের তালিকা প্রকাশ, ২ নভেম্বর মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার, ৩ নভেম্বর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ, ১৫ নভেম্বর নির্বাচন এবং গননা শেষে বেসরকারি ফলাফল ঘোষনা। ১৮ নভেম্বর প্রজ্ঞাপন আকারে সরকারিভাবে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ।

The Post Viewed By: 90 People

সম্পর্কিত পোস্ট