চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৭ অক্টোবর, ২০১৯ | ১:০৩ পূর্বাহ্ণ

গিনেস বুকে লিভারপুল ডিফেন্ডার

গেল মৌসুমটা লিভারপুলের কেটেছে একদম স্বপ্নের মতো। ১৪ বছর পর উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় তবে আক্ষেপ মাত্র ১ পয়েন্টের জন্য লিগ শিরোপা হাতছাড়ার। সবকিছু মিলিয়ে দারুণ এক মৌসুম কেটেছে অলরেডদের। আর দলগত পারফরম্যান্সের সাথে সাথে ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের দিক থেকেও বেশ দারুণ কেটেছে অলরেড তারকাদের। আর এই তালিকার উজ্জ্বল এক নাম ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ড। সম্প্রতি নিজের নাম লিখিয়েছেন গিনেস বুকে। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলে সহায়তা করার পুরস্কার স্বরূপ গিনেস বুকে নাম উঠেছে লিভারপুল রাইট ব্যাক ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ডের। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ২০১৮/২০১৯ মৌসুমে অলরেডদের হয়ে ১২টি এসিস্ট করেছিলেন তিনি। এতেই ভেঙেছেন ২০১০/২০১১ মৌসুমে লেইটন বেইনসের আর ১৯৯৪/১৯৯৫ সালে এন্ডি হাইনক্লিফের ১১ এসিস্টের রেকর্ড। আট বছর আগে এভারটনের লেইটন বেইনস ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের এক মৌসুমে সর্বোচ্চ ১১টি এসিস্ট করেছিলেন। তবে তিনি একা নন এরও ১৬ বছর আগে আরও এক এভারটন ডিফেন্ডার এন্ডি হাইনক্লিফও করেছিলেন ১১টি এসিস্ট। অ্যান্ডি হাইনক্লিফের ২৫ বছরের রেকর্ড আর লেইটন বেইনসের ৮ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিলেন নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুলের ২১ বছর বয়সী ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার আর্নল্ড। সম্প্রতি ঘোষিত ফিফার বর্ষসেরা একাদশ ফিফপ্রোর একাদশে জায়গা মেলেনি আর্নল্ডের। মৌসুম জুড়ে এমন দারুণ পারফরম্যান্স করার পরেও ফিফার সেরা একাদশে আলেক্সান্ডার আর্নল্ডকে দেখতে না পেয়ে বেশ ক্ষুদ্ধই হয়েছে ফুটবল সমর্থকেরা। তবে সে ঘায়ে কিছুটা হলেও মলম লেগেছে গিনেস বইয়ে তার নাম দেখে। এই রেকর্ড গড়তে আর্নল্ডকে আরও বেশি সাহায্য করেছে তার ক্লাব সতীর্থ অ্যান্ডি রবার্টসন। এই দুই ফুলব্যাক মিলে গেল সিজনে মোট ২৯টি এসিস্ট প্রদান করেছেন। রবার্টসন গেল মৌসুমে আর্নল্ডের থেকে মাত্র ১টি কম ১১টি এসিস্ট করেছিলেন। চলতি মৌসুমেও দারুণ সূচনা করেছে লিভারপুল। লিগের প্রথম আট ম্যাচের সবক’টিতেই জিতে অবস্থান করছে টেবিলের শীর্ষে।

The Post Viewed By: 50 People

সম্পর্কিত পোস্ট