চট্টগ্রাম বৃহষ্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৬ অক্টোবর, ২০১৯ | ২:৩১ পূর্বাহ্ণ

স্পোর্টস ডেস্ক

মুস্তাফিজের সামনে এনসিএল পরীক্ষা

শরীরে তার দুটি পুরোনো চোট। একটি কোমরে অপরটি গোঁড়ালিতে। পুরোপুরি সেরে উঠেননি বিধায় চলতি জাতীয় ক্রিকেট লিগের প্রথম রাউন্ডে খেলা হয়ে উঠেনি। খুলনা বিভাগের হয়ে খেলতে ঢাকা থেকে যাত্রা শুরু করলেও নির্বাচকেরা তাকে বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে এনেছেন। এরপর বিসিবির ফিজিও জুলিয়ান ক্যালেফতের অধীনে হোম অব ক্রিকেটে চলেছে ইনজুরির পুনর্বাসন। পরিস্থিতি আগের চাইতে উন্নতি হওয়ায় দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলায় অংশ নিতে গতকাল খুলনার বিমান ধরেছেন। বড় কোনো দুর্ঘটনা না ঘটলে ১৭ অক্টোবর থেকে অনুষ্ঠেয় জাতীয় লিগের এই রাউন্ডে তিনি খেলবেনও। কিন্তু শুধু খেলার জন্য খেললেই হবে না, ফুল ইন্টেনসিটিতে বোলিং করে দেখাতে হবে। পুরোপুরি ফিটনেসের প্রমাণ দিতে চার দিনের এই ম্যাচের দুই ইনিংসে তাকে প্রতিদিন ১৫ ওভার করে বোলিং করে দেখাতে হবে। অবশ্য ফিজিও ক্যালেফতেও দিনে তাকে এর চাইতে বেশি বোলিংয়ের অনুমতি দেননি। এতে করে বলার অপেক্ষাই থাকছে না যে জাতীয় লিগটি তার জন্য অঘোষিত এক পরীক্ষা ক্ষেত্র হয়ে উঠেছে। আর সেই পরীক্ষায় পাশ করলেই কেবল আগামি মাসে ভারতের বিপক্ষে অনুষ্ঠেয় টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য বিবেচিত হবেন। নুতবা নয়। বলছিলাম বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের কথা। গতকাল মুস্তাফিজকে উদ্দেশ্য করে এভাবেই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। ‘অবশ্যই ওকে প্রমান দিতে হবে। প্রতিদিন ১৫ ওভার করে বল করতে হবে। ফিজিও আমাকে একটি গাইডলাইন দিয়েছে। ওর প্রথম ম্যাচ থেকে খেলার কথা ছিল। যেহেতু ওর গোড়ালিতে একটু সমস্যা আছে, এই কারণে পুরোপুরি লোড সে নিতে পারছে না। পুরোপুরি লোড না নিতে পারলে দ্বিতীয় ম্যাচেও খেলতে পারবে না। এখন সে রিকভার করেছে। দেখার বিষয় যে সে কত ওভার বল করতে পারে। একটা গাইডলাইন দিয়েছে যে ১৫ ওভারের বেশি বল করতে পারবে না দ্বিতীয় ম্যাচটিতে। সেই হিসেবে আমরা এটি দেখবো এবং ওর ফিটনেসের ব্যাপারে চিন্তা করবো। এক এক ইনিংসে পার ডে ১৫ ওভার পর্যন্ত করতে পারবে।‘ যোগ করেন নান্নু। এনসিএলে ফিটনেস পরীক্ষায় উৎরে গেলে ভারতে দুটি টেস্টেই খেলবেন মুস্তাফিজ? সংবাদ মাধ্যমের করা এমন প্রশ্নে নান্নু জানালেন, ‘এটা পুরোপুরি টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত। মাঠে আমরা কাজ করি না। ফিটনেস ট্রেইনার, বোলিং কোচ আছে, এরাই কিন্তু আপডেটটি দিবে। ও কতটুকু বোলিং করতে পারবে, ব্যাক টু ব্যাক টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারবে কিনা।‘ ১৭ অক্টোবর খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে জাতীয় ক্রিকেট লিগে দ্বিতীয় রাউন্ডে মুশফিকের রাজশাহী বিভাগের মুখোমুখি হবে মুস্তাফিজের খুলনা বিভাগ।

The Post Viewed By: 80 People

সম্পর্কিত পোস্ট