চট্টগ্রাম বুধবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:৪১ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক

ঝড়ো ব্যাটিংয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের রেকর্ড

প্রয়োজনের সময়ই জ্বলে উঠলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। পেলেন ফিফটি। তার ৬২ রানে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে গতকাল নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে শুরুতে ১৭৬ রানের বড় লক্ষ্য দেয় বাংলাদেশ। এই ইনিংস দিয়ে আড়াই বছরেরও বেশি সময় পর জাতীয় দলের জার্সিতে টি-টোয়েন্টি ফিফটির খরা কাটালেন মাহমুদউল্লাহ। সবশেষ ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংস খেলেছিলেন মিডলঅর্ডারের অন্যতম এ ভরসা। আগের ম্যাচেও রান করেছিলেন। তবে সেই ইনিংসে টি- টোয়েন্টির মেজাজ কিংবা কার্যকারিতা ছিল না ততটা। তবে গতকাল সাগরিকায় ঝড়ো ইনিংস খেললেন মাহমুদউল্লাহ। যে ইনিংসে গড়েছেন একটি রেকর্ড, ছুঁয়েছেন আরেকটি।

ত্রিদেশীয় সিরিজে গতকাল বুধবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চট্টগ্রামে ৪১ বলে ৬২ রানের ইনিংস খেলেছেন মাহমুদউল্লাহ। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে ৫ নম্বরে ব্যাট করে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস এটিই। আগের রেকর্ডটি ছিল সাকিব আল হাসানের। গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ফ্লোরিডায় ৩৮ বলে ৬০ রান করেছিলেন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। পাঁচে নেমে বাংলাদেশের হয়ে ফিফটি করেছেন কেবল আর একজনই। ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩২ বলে অপরাজিত ৫১ করেছিলেন সাব্বির রহমান। তালিকায় পরের তিনটি ইনিংসই মাহমুদউল্লাহর। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গত বছর ৩১ বলে ৪৩, একই সিরিজে ৩১ বলে ৪১ ও ২০১২ সালে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ৩১ বলে ৪১ রান করেছিলেন। রেকর্ড ৬২ রানের ইনিংসটির পথে ৫টি ছক্কা মেরেছেন মাহমুদউল্লাহ। ৫ নম্বরে তো বটেই, টি-টোয়েন্টিতে যে কোনো পজিশনে নেমেই এক ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ছক্কার রেকর্ড এটি। তবে এই রেকর্ডটি মাহমুদউল্লাহর একার নয়। ৫টি ছক্কা মেরেছেন সব মিলিয়ে ৫ ব্যাটসম্যান। ২০০৭ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫০ বলে ৮১ রানের ইনিংসের পথে মেরেছিলেন নাজিমউদ্দিন, ২০১২ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বেলফাস্টে ১৭ বলে ৪০ রানের ইনিংসে জিয়াউর রহমান, ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওই ইনিংসটির পথে সাব্বির ও ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওমানের বিপক্ষে সেঞ্চুরির পথে মেরেছিলেন তামিম ইকবাল। চার-ছক্কার ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি ছক্কা কেবল পাঁচটি, বাংলাদেশের ব্যাটিং দৈন্যও এতে ফুটে ওঠে খানিকটা।-বিডিনিউজ

The Post Viewed By: 126 People

সম্পর্কিত পোস্ট