চট্টগ্রাম মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯

সর্বশেষ:

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ১:৪৪ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক

ব্র্যাডম্যানকে টপকে অনন্য স্মিথ

ইংল্যান্ডের মাটিতে চলমান এশেজে লিখে চলেছেন রূপকথা। একা হাতেই যেমন বেন স্টোকস হেডিংলি টেস্ট জিতেছিল, তার থেকেও বেশি অবদান অজিদের এবারের এশেজ জয়ে স্মিথের ভূমিকা। দ্য ওভালের প্রথম ইনিংস পর্যন্ত অজিদের হয়ে স্মিথ খেলেছেন ছয়টি ইনিংস। আর এই ছয় ইনিংসে সর্বনিম্ন রান ৮০, আর সেই ইনিংসটাও খেলেছেন ওভালের প্রথম ইনিংসে। এর আগে এশেজের প্রথম টেস্টের দুই ইনিংসে করেছিলেন যথাক্রমে ১৪৪ এবং ১৪২ রান। দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে করেছিলেন ৯২ রান। এই টেস্টেই মাথায় আঘাত পেয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলা হয়নি তার। চতুর্থ টেস্টে ফিরেই ২১১ রানের মহাকাব্যিক ইনিংস। আর দ্বিতীয় ইনিংসে ৮২ রান। পঞ্চম টেস্টের প্রথম ইনিংস এশেজে ব্যক্তিগত সর্বনিম্ন ৮০ রান। আর এতেই ছাড়িয়ে গেছেন কিংবদন্তি ব্র্যাডম্যান, কুমার সাঙ্গাকারা, ইনজামাম-উল-হক, ব্র্যায়ান লারার মতো গ্রেটদের। ১৯৩৭ সাল থেকে ১৯৪৬ সাল পর্যন্ত এশেজের টানা দশ ইনিংসে ডন অজি কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান করেছিলেন ১২৩৬ রান। আর ৭৩ বছর পর এই রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড গড়েছেন স্মিথ। ২০১৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত এশেজের শেষ দশ ইনিংসে স্মিথ করেছেন ১২৫১ রান। আর এতেই ব্র্যাডম্যানকে ছাড়িয়ে যান স্মিথ। কেবল ব্র্যাডম্যানকেই নয় স্মিথ অনন্য আর এক রেকর্ডে পেছনে ফেলেছেন সাঙ্গাকারাকেও।
লঙ্কান এই কিংবদন্তি ২০০৯ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশের বিপক্ষে টানা আট ইনিংসে খেলেছিলেন পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংস। এবার সেই রেকর্ড নতুন করে লিখেছেন স্টিভ স্মিথ। ইংলিশদের বিপক্ষে ২০১৭ সালের এশেজ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত খেললেন টানা দশটি পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংস। এই রেকর্ড গড়ার পথে স্মিথ পেছনে ফেলেছেন ইনজামাম-উল-হক ও ক্লাইভ লয়েডের রেকর্ডও। এই দুই কিংবদন্তি টানা সর্বোচ্চ ৯ ইনিংসে খেলেছিলেন পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের ইনিংস, আর তিনজনের প্রতিপক্ষও ছিল ইংল্যান্ডই।

The Post Viewed By: 40 People

সম্পর্কিত পোস্ট