চট্টগ্রাম শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ২:৪৩ পূর্বাহ্ণ

দেবাশীষ বড়–য়া দেবু

মুখোমুখি আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ চট্টগ্রাম টেস্ট আজ শুরু

বিসিবি একাদশের বিরুদ্ধে সফরকারি আফগানিস্তানের অধিনায়ক রশীদ লতিফ ও নতুন সেনসেশন জহির খান দারুণ স্পিন বোলিং করেছিলেন। এতেই নাকাল হয়েছিলেন বিসিবি দলের ব্যাটসম্যানরা। তাই বলে সাকিব বাহিনী যে নাকাল হবে, সেটা কেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রিয় দর্শকদের বিশ^াস করতে হবে! তবে হ্যা, আশঙ্কা থাকতেই পারে। ঠিক সে আশঙ্কা নিয়েই আজ থেকে শুরু হচ্ছে সফরকারী আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যকার একমাত্র টেস্ট ম্যাচ। খেলাটি আজ সকাল ১০টায় জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে। এ ম্যাচের জন্য দু-দলই নিজেদের ঝালিয়ে নেয়ার পাশাপাশি পরিকল্পনা মাফিক অনুশীলন করেছে। এতে আফগানিস্তান যেমন বিসিবি একাদশের সাথে ২ দিনের একটি ম্যাচ খেলেছে, তেমনি বাংলাদেশ দলও নিজেদের মধ্যে দু-ভাগে ভাগ হয়ে প্র্যাকটিস ম্যাচের মাধ্যমে প্রস্তুতি সেরেছে। এদিকে, আজ জয়ের ধারায় ফেরার লক্ষ্য নিয়েই আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে একমাত্র টেস্ট খেলতে নামবে স্বাগতিক বাংলাদেশ। এর আগে নিউজিল্যান্ড সফরে প্রথম ২টি টেস্টেই পরাজিত হয় বাংলাদেশ। ৩য় ও শেষ টেস্টটি ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় বাতিল হয়েছিল।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে হারলেও বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ নিয়ে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজ জয় করে বাংলাদেশ দল। এরপর বিশ্বকাপেও ছিল বাংলাদেশের অসাধারণ পারফরমেন্স। কিন্তু তারপরে শ্রীলংকা সফরের ব্যর্থতা ভুলে যাওয়টাই মঙ্গল। ঠিক এ কারণেই অক্টোপাসের মতো জড়িয়ে ধরা ব্যর্থতার খোলস থেকে বেরিয়ে আসার সময়টা এখনই। অধিনায়ক সাকিব আল হাসান সমস্ত দুশ্চিন্তা পেছনে ফেলে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। তিনি আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া ম্যাচটি জয়ের উপর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, ‘এক রান না একশ রানে জিতলাম সেটা বড় কথা নয়, ম্যাচ জয়ই গুরুত্বপূর্ণ’। তিনি বলেন, ‘সব মিলিয়ে এই মুহূর্তে আমরা জয়ের মধ্যে নেই। সেটা জাতীয়, একাডেমি কিংবা অন্য কোন দলই জয়ের মধ্যে নেই। সেদিক বিবেচনায় এ ম্যাচটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা জিততে পারলে সব কিছুই আবার স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের সেরা পারফরমার অধিনায়ক সাকিব আল হাসানকে তাড়াতাড়ি সাজঘরে ফেরত পাঠানোর হিসেব কষছেন আফগান অধিনায়ক রশীদ খান। তিনি বলেন, টেস্টে হয়তো বিশ্বকাপের ফর্মে দেখা যাবে না সাকিবকে। তিনি আরো বলেন, স্পিনারদের বিপক্ষে ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে এই টেস্টে। তবে উইকেটের জন্য স্পিনারদের সঠিক জায়গায় লাইন-লেন্থ ঠিক রেখে বল করতে হবে। একটা ব্যাপার নিশ্চিত, দুই দলের ব্যাটসম্যানদের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। যে দলের ব্যাটসম্যানরা মাথা ঠান্ডা রেখে খেলতে পারবে, তাদের জয়ের সম্ভাবনা বেশি। এদিকে ৪ স্পিনার নিয়ে গড়া বাংলাদেশ দলের আক্রমণের বিরুদ্ধে লড়তে প্রস্তুত আফগান স্পিনাররাও। আজকের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজ দলকে আন্ডারডগ হিসেবে স্বীকার করেছেন আফগানিস্তান কোচ এন্ডি মোলস। তবে তিনি বলেছেন, একটি জয় আফগানিস্তান ক্রিকেটকে বদলে দিতে পারে।

এদিকে প্রথম এসাইনমেন্টে জয় দিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের হয়ে কোচিং ক্যারিয়ার শুরু করতে চান নতুন কোচ রাসেল ডমিঙ্গো। তিনি বলেন, কেউই পরাজিত হতে চায়না। জয় দিয়ে শুরু করতে পারাটা সত্যিকার অর্থেই অনেক বড় কিছু হবে’।
উল্লেখ্য, ২০০০ সালে মর্যাদা পাওযার পর এ পর্যন্ত ১১৪টি টেস্ট খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে ১৩টিতে জয়ের পাশাপাশি পরাজিত হয়েছে ৮৫ টেস্টে, ড্র হয়েছে ১৬টি। অন্যদিকে গত বছর মর্যাদা পাওয়ার পর আফগানিস্তান মাত্র ২টি টেস্ট খেলেছে। অভিষেক টেস্টে ভারতের কাছে পরাজিত হয়েছে ইনিংস ও ২৬৫ রানে। দ্বিতীয় ম্যাচটি জিতেছে ৭ উইকেটে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে।

শেয়ার করুন
The Post Viewed By: 306 People

সম্পর্কিত পোস্ট